BREAKING NEWS

২৫ চৈত্র  ১৪২৬  বুধবার ৮ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

ভিন রাজ্যে দখলে থাকা পুরসভার উন্নয়ন নিয়ে প্রচার, পুরভোটে নয়া হাতিয়ার বিজেপির

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 22, 2020 8:45 pm|    Updated: February 22, 2020 8:48 pm

An Images

ফাইল ফটো

রূপায়ন গঙ্গোপাধ্যায় : ভিনরাজ্যে বিজেপির দখলে থাকা পুরসভার উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরে বাংলার পুরভোটে লড়বে গেরুয়া শিবির। মহারাষ্ট্র, গুজরাত, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ-সহ একাধিক রাজ্যে বহু পুরসভায় ক্ষমতায় রয়েছে গেরুয়া শিবির। সেখানে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে উন্নয়নের ছবিটা কী রকম সেটাই বাংলার পুর যুদ্ধের প্রচারে সামনে রাখবে রাজ্য বিজেপি। তবে প্রচারে ধর্মীয় মেরুকরণকেও হাতিয়ার করা হবে বলে দলীয় সূত্রে খবর। পাশাপাশি, রাজ্যের বিভিন্ন পুরসভায় শাসকদলের বিরুদ্ধে মানুষের ক্ষোভকেও তুলে ধরা হবে প্রচারে। 

আগামী ১২ এপ্রিল কলকাতা ও হাওড়া পুরসভার ভোট হতে চলেছে। বাকি ১০০টি পুরসভার ভোট হওয়ার সম্ভাবনা ২৬ এপ্রিল। প্রশাসন সূত্রে এমনটাই খবর। রাজ্যে ১১২টি পুরসভার ভোটের সময় হয়ে গিয়েছে। হাওড়া—সহ ১৭টি পুরসভার মেয়াদ ২০১৮ সালের অক্টোবর ও ডিসেম্বরে শেষ হয়েছে। বাকি ৯৩টি পুরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী এপ্রিল—মে মাসে। পুরভোটকে সামনে রেখে বিজেপি বিভিন্ন জেলায় ইতিমধ্যেই প্রচারে নেমে পড়েছে।

[আরও পড়ুন : বিদ্যুতের তারের ছোঁয়ায় ‘অপমৃত্যু’ হনুমানের, হরিনাম সংকীর্তনে শেষ বিদায় পবনপুত্রকে]

এ রাজ্যে কোনও পুরসভাই বিজেপির দখলে নেই। ফলে তাঁদের নেতৃত্বে উন্নয়নের কোনও ছবি তুলে ধরা সম্ভব নয়। তাই শাসকদল পরিচালিত বিভিন্ন পুর এলাকায় উন্নয়নের খামতি নিয়ে বাসিন্দাদের যে সমস্ত অভাব-অভিযোগ রয়েছে সেগুলিকে যেমন বিজেপি নেতৃত্ব প্রচারে তুলে ধরবে। পাশাপাশি প্রচারে ডেঙ্গু, নিকাশী, পানীয় জলের সমস্যা ইত্যাদি বিষয়গুলিও থাকবে।

[আরও পড়ুন : তন্ত্রসাধনার জন্য গৃহকর্তাকে খুনের চেষ্টা! স্ত্রী-মেয়ের হাত থেকে পালিয়ে বাঁচলেন বৃদ্ধ]

এর পাশাপাশি ভিন রাজ্যে বিজেপি পরিচালিত পুরসভার উন্নয়নের ছবিটাও প্রচারে তুলে ধরবে গেরুয়া শিবির। যেমন, দিল্লি পুরসভায় ২৭২টি আসনের মধ্যে ১৮১টি আসনে জিতে ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি। আবার গুজরাতে ৭৫টি পুরসভার মধ্যে ৪৭টি পুরসভার বোর্ডই বিজেপির দখলে। একইসঙ্গে রাজ্যে পুরভোটের প্রচারে জোর থাকবে মেরুকরণের উপরও। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরোধিতায় পার্কসার্কাসে বিক্ষোভ-অবস্থান ইস্যু থেকে শুরু করে অনুপ্রবেশ, সংখ্যালঘু তোষণ ইত্যাদি বিষয়গুলিও প্রচারে রাখা হবে বলে দলীয় সূত্রে খবর।

Advertisement

Advertisement

Advertisement