BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘রাজ্য সরকারের নীতি হিংসা, অথচ পুলিশ নির্বিকার’, ফের উর্দিধারীদের তোপ দিলীপের

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 7, 2020 9:16 pm|    Updated: September 7, 2020 9:20 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: রাজ্যজুড়ে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলার ঘটনা নিয়ে সরব বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তৃণমূলের দিকে নিশানা করে দিলীপ বলেন, “রাজ্য সরকার হিংসাকেই নীতি হিসাবে মেনে নিয়েছে। পুলিশ এখানে নির্বিকার। বিরোধীদের উপর লাগাতার আক্রমণ করে শেষ করার চেষ্টা হচ্ছে। এর ফলে সারা সমাজ ভয়ের পরিবেশ তৈরি হচ্ছে। প্রতিহিংসার পরিবেশ তৈরি হচ্ছে।” দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে বিজেপির মহিলা কর্মীর উপর হামলার ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে সোমবার এভাবেই সরব হয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

একই ইস্যুতে সরব হয়েছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya)। টুইটে রাজ্য সরকারকে তোপ দাহেন তিনি। বিষ্ণুপুরে বিজেপি মহিলা মোর্চার কোষাধ্যক্ষ তৃণমূলের বর্বরোচিত হামলার শিকার বলেও তোপ দাগেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনাজয়ীর চেয়ে বেশি সংক্রমিতের সংখ্যা, লাগামছাড়া উঃ ২৪ পরগনা]

সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় (Locket Chatterjee) এই ঘটনার নিন্দায় সরব। রাজ্যের মহিলা মুখ্যমন্ত্রী নারীকে সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ বলেই সুর চড়ান বিজেপি নেত্রী।

এদিকে, লকডাউন নিয়ে রাজ্য সরকারের সমালোচনা করেছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা (Rahul Sinha)। লকডাউনকে সরকারের ডাকা বনধ বলে কটাক্ষ করেন তিনি। রাহুলবাবু আরও বলেন, “সারা দেশে যখন সব কিছু খুলে যাচ্ছে। কন্টেনমেন্ট জোন ছাড়া কোথাও লকডাউন হচ্ছে না। সেখানে পশ্চিমবঙ্গ সরকার পরীক্ষার্থীদের কষ্ট দিতে ও চিন্তা বাড়াতে লকডাউন ডেকেছে।” রাজ্য সরকারের কাছে রাহুল সিনহার আবেদন, ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর লকডাউন প্রত্যাহার করা হোক। করোনার বিরুদ্ধে লড়াই ও দেশের অর্থনীতি চাঙ্গায় বাংলা যাতে অগ্রণী ভূমিকা নেয় সেটা দেখতে হবে।

[আরও পড়ুন: এখনই রাজ্যে চালু হচ্ছে না নতুন শিক্ষানীতি, কেন্দ্রের বৈঠকের পর স্পষ্ট জানালেন পার্থ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement