২ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনাজয়ীর চেয়ে বেশি সংক্রমিতের সংখ্যা, লাগামছাড়া উঃ ২৪ পরগনা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 7, 2020 8:46 pm|    Updated: September 7, 2020 8:51 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের প্রথম দিকে রাজ্যে সবচেয়ে ভয়ংকর ছবিটা ছিল কলকাতার। প্রতিদিনই তিলোত্তমায় লাফিয়ে বাড়ছিল আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। কিন্তু এখন কলকাতার চেয়েও বেশি চিন্তায় ফেলছে উত্তর ২৪ পরগনা। কোনওভাবেই যেন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হচ্ছে না মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ। সোমবারের মতো মঙ্গলবারও দেশে অতীত রেকর্ড ভেঙে ছড়িয়েছে সংক্রমণ। স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়, দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত প্রায় ৯১ হাজার। আর সন্ধেয় কপালের ভাঁজ গভীর হল রাজ্যের বুলেটিনে। কারণ বেশ কয়েকদিন পর সোমবার করোনাজয়ীর তুলনায় বেশি আক্রান্তের সংখ্যা।

এদিন স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৭৭ জন। যার মধ্যে শুধু কলকাতায় আক্রান্ত ৪৫৮ জন। সেখানে তিলোত্তমাকে ফের ছাপিয়ে উত্তর ২৪ পরগনায় একদিনে ৫৭৬ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। ফলে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ১ লক্ষ ৮৩ হাজার ৮৬৫। এই সংখ্যা উদ্বেগজনক হলেও বর্তমানে অ্যাকটিভ কেস অনেকটাই কম। অ্যাকটিভ কেস কমে দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ২১৬-য়।

[আরও পড়ুন: সিরিয়ালের দৃশ্য অনুকরণ করে গলায় ফাঁস, মর্মান্তিক পরিণতি মুর্শিদাবাদের খুদে পড়ুয়ার]

যত সময় গড়াচ্ছে, জাগছে করোনার ভ্যাকসিন হাতে পাওয়ার আশা। তবে এর মধ্যেও সারা বিশ্বেই এই মারণ ভাইরাস এখনও মানুষের প্রাণ কেড়ে চলেছে। ব্যতিক্রম নয় বাংলাও। স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৫৮ জনের। ফলে বাংলায় করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ৩,৬২০ জন। তবে এতকিছুর মধ্যেও স্বস্তি দিচ্ছে ঊর্ধ্বমুখী সুস্থতার হার। একদিনে করোনাকে জয় করে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ২১ জন। যদিও সংখ্যাটা গতকালের তুলনায় কম। বাংলায় এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ লক্ষ ৫৭ হাজার ২৯ জন। সুস্থতার হার বেড়ে ৮৫.৪০ শতাংশ।

লকডাউন, সোশ্যাল ডিসটেন্সিংয়ের পাশাপাশি ট্রেসিং, ট্র্যাকিং ও টেস্টিংয়ের মাধ্যমে দ্রুত করোনা রোগীকে চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।যাতে দ্রুত আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়। তাই বেড়েছে টেস্টিংয়ের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২ হাজার ২১৬টি স্যাম্পেল টেস্ট হয়েছে। রাজ্যে এখনও অবধি মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২২ লক্ষ ৯০৬টি।

[আরও পড়ুন: এখনই রাজ্যে চালু হচ্ছে না নতুন শিক্ষানীতি, কেন্দ্রের বৈঠকের পর স্পষ্ট জানালেন পার্থ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement