BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ভলিউমটা কমেছে, স্পিকারের কানেকশনও বন্ধ হবে’, অনুব্রতকে পালটা দিলীপের

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 22, 2020 10:08 am|    Updated: November 22, 2020 9:32 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বরাবরই ঠোঁটকাটা হিসাবে পরিচিত বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mandal)। আর কাউকেই পালটা জবাব দিতে ছাড়েন না বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এবার সরাসরি বাকযুদ্ধে জড়ালেন তৃণমূল ও বিজেপি শিবিরের দুই নেতা। একে অপরকে তোপ দাগলেন তাঁরা।

শনিবার বীরভূমের ইলামবাজারে তৃণমূলের (TMC) বুথ কমিটির সভা ছিল। সেই সভাতেই উপস্থিত ছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। সেখানেই সরাসরি দিলীপ ঘোষকে বিজেপিতে যোগদানের প্রস্তাব দেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি। দেন যোগদানের শর্তও। তিনি বলেন, “দিলীপ ঘোষ বড় ভয়ংকর ভাইরাস। ওর মতো ভাইরাস পশ্চিমবঙ্গে কেউ নেই। আমি দিলীপ ঘোষকে বলছি তুমি তৃণমূলে এসো। বুথের কর্মীদের সঙ্গে পাশে থাকো। দিলীপ ঘোষ আসবে আমাদের বুথ কমিটির লোকেরা ওকে দলে নিয়ে নেবে। কিন্তু ও তো ভয়ংকর ভাইরাস (Virus)। তাই ওকে স্যানিটাইজ করে গোবর মাখিয়ে ডোবার জলে স্নান করানো হবে।”

[আরও পড়ুন: অনন্য কীর্তি কলেজ ছাত্রীর, দুধের সরের উপর আঁকলেন ৮ স্বাধীনতা সংগ্রামীর ছবি]

বীরভূমের দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতার বক্তব্যের পালটা জবাব দিতে ছাড়েননি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তিনি অনুব্রত মণ্ডলকে একহাত নিয়ে বলেন, “এর আগেও অনেক ডায়লগ দিয়েছেন। কিছু করেননি উনি। বলেছিলেন ঢাক বাজাবেন। আমি বললাম ধামসা নিয়ে যাচ্ছি। ঢাকের আওয়াজ শুনিনি। তাই ধামসাও বাজাইনি। ভলিউমটা কমেছে খানিকটা। আমার মনে হয় ধীরে ধীরে স্পিকারের কানেকশন বন্ধ হবে। ডায়লগবাজি করে লাভ নেই। বস্তা বস্তা বোমা উদ্ধার হচ্ছে পার্টি অফিস ও নেতাদের বাড়ি থেকে। বীরভূমবাসী ভয়ের মধ্যে রয়েছেন। পরিত্রাণ চাইছেন। ওদের হাত থেকে মুক্তি দেবে বিজেপি।” 

[আরও পড়ুন: পরকীয়ার পরিণতি! প্রেমিকার বাড়ির সামনে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী পিংলার যুবক]

এদিন সল্টলেকের এক অনুষ্ঠানেও আত্মবিশ্বাসী সুর শোনা গেল দিলীপ ঘোষ। বললেন, ”বিজেপির দুটো আসন ছিল। সেখান থেকে আজ ১৮টি আসন পেয়েছে লোকসভায়। এবার অমিত শাহজি বলেছেন, বিজেপি ২০০টি আসন পাবে বিধানসভায়। বিজেপি হাসতে হাসতে ২০০টিই আসন জিতবে।”ভোটের দামামা প্রায় বেজে গিয়েছে। চড়ছে উত্তাপও। তারই মাঝে দুই নেতার চাঁচাছোলা আক্রমণ সেই ঝাঁজ আরও বাড়িয়ে দিল নিঃসন্দেহে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement