১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজ্যে দলের জয় না হওয়া পর্যন্ত পায়ে জুতো গলাবেন না, ধনুকভাঙা পণ বিজেপি কর্মীর

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 10, 2019 6:57 pm|    Updated: April 10, 2019 6:57 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: পরনে প্যান্ট-শার্ট। খালি পা। চটি-জুতো তিনি পরেন না। খালি পায়েই গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে ঘোরেন। শহরেও যাতায়াত করেন। না, পায়ে কোনও রোগ হয়নি। চটি-জুতো পরলে পায়ে ফোস্কাও পড়ে না। তিনি পণ করেছেন। মানতও বলা যেতে পারে। তা যতক্ষণ না পূরণ হচ্ছে ততদিন পায়ে চটি গলাবেন না। স্বেচ্ছায় চটি-জুতো পরা ছেড়েছেন বর্ধমানের বুদবুদ থানার দেবশালা গ্রামের জয়দেব বাগদি।

অনেকেই ঠাকুর-দেবতার থানে মানত করেন অনেক কিছুই। কেউ চুল রাখেন। দাড়ি কাটেন না, মানত পূরণ না হওয়া পর্যন্ত। আবার কেউ আছেন, তুকতাকে বিশ্বাসী। দল খেলায় চ্যাম্পিয়ন না হওয়া পর্যন্ত হয়তো একটিই জামা পরে কাটিয়ে দেন। জয়দেববাবু অবশ্য কট্টর রাজনীতির লোক। তিনি পণ করেছেন, রাজ্যে বিজেপি না জেতা পর্যন্ত চটি-জুটো পরবেন না। খালি পায়েই সর্বত্র চলাফেরা করবেন। বুধবার বর্ধমান আদালত চত্বরে দেখা মিলল তাঁর। বর্ধমান-দুর্গাপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়ার সঙ্গে দেখা করে পুষ্পস্তবক তুলে দেবেন বলে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করছিলেন তিনি। বিজেপি প্রার্থী প্রচারের ফাঁকে তাঁর সঙ্গে দেখা করলেন। কথাবার্তাও বললেন। তাঁর হাতে জয়দেববাবু ফুলের তোড়া তুলে দিয়ে বললেন, “জিততেই হবে আমাদের। যতদিন না আমরা রাজ্যে জিতছি ততদিন আমি জুতো পরব না।”

পাশে নিয়ে এস এস আলুওয়ালিয়াও তাঁকে আশ্বাস দিলেন, কোনও চিন্তা নেই। তাঁরা জিতছেনই। পরে বিজেপি প্রার্থী বলেন, “দলকে ভালবাসেন জয়দেববাবু। তিনি পণ করেছেন দল না জেতা পর্যন্ত জুতোই পরবেন না। খালি পায়ে ঘুরবেন। আমাদের জিততেই হবে।” জয়দেববাবু দাবি করেছেন, বিজেপি করেন বলে বিরোধীদলের হামলা হয়েছে তাঁর উপর। অনেকগুলি কেসও খেতে হয়েছে। কিন্তু তিনি দমবার পাত্র নন। চটি-জুতো ছেড়েছেন, রাজনীতি ছাড়বেন না। তাঁর কথায়, ‘খালি পায়েই ঘুরব, দলের জয় না হওয়া পর্যন্ত।’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement