১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিজেপি নেতার অপহরণ ঘিরে উত্তপ্ত নোদাখালি, গুরুতর আহত ২ পুলিশকর্মী

Published by: Bishakha Pal |    Posted: July 6, 2019 4:08 pm|    Updated: July 6, 2019 9:26 pm

BJP-TMC clash at Nadakhali area in South 24 Parganas

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: জেলা পরিষদমণ্ডলীর সাধারণ সম্পাদককে অপহরণ ও তারপর তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দক্ষিণ ২৪ পরগণার নোদাখালি থানার দক্ষিণ রায়পুর। শুক্রবার রাতে এখানে বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। জেলা পরিষদের ৬৮ নম্বর আসনের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল মণ্ডলকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা অপহরণ করে বলে অভিযোগ। সেই নিয়েই দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে সমস্যা শুরু হয়। এলাকায় পরিস্থিতি এখন বেশ উত্তপ্ত। জায়গায় জায়গায় চলছে বোমাবাজি।

বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, ছয়-সাতটি মোটরবাইকে চেপে ওই দুষ্কৃতীরা রিভলবার ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে যায় শ্যামল মণ্ডলকে। তারপর তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়। বিজেপির দক্ষিণ ২৪ পরগনা (পশ্চিম) জেলার সভাপতি অভিজিৎ দাস জানান, থানায় বিষয়টি ফোন করে জানালেও পুলিশ ওই কর্মীকে উদ্ধার করতে গড়িমসি করে। কিছুক্ষণ পর শ্যামল মণ্ডলকে দুষ্কৃতীরা ছেড়ে দেয়। এরপর গ্রামবাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি রাজকুমার প্রামাণিকের বাড়ি ঘেরাও করে। ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। পুলিশের পক্ষ থেকে বিজেপি কর্মীকে অপহরণের ঘটনায় লিখিত অভিযোগ জানাতে বলা হয়। এরপর গ্রামের মহিলারা থানায় যাওয়ার প্রস্তুতি নিতে শুরু করে। কিন্তু এর মধ্যে রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ বেশ কয়েকটি বাইকে চেপে দুষ্কৃতীরা পুলিশের সামনেই শূন্যে পাঁচ-ছয় রাউন্ড গুলি চালায় এবং বোমা ছুঁড়তে থাকে। এই ঘটনায় এলাকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বোমার আঘাতে দুই পুলিশকর্মী আহতও হন।

[ আরও পড়ুন: নবদ্বীপে যুবক খুনে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারির দাবি, পথ অবরোধ বিজেপির ]

এদিকে বিজেপির অভিযোগ, পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ করলেই শ্যামল মণ্ডলকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়। আতঙ্কে তাঁকে গৃহবন্দি থাকতে হচ্ছে বলেও অভিযোগ বিজেপির। তবে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি পালটা অভিযোগ করেন, গুলি চালিয়ে, বোমা মেরে বিজেপিই শুক্রবার রাতে এলাকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত করেছিল। বিজেপি কর্মীরা রাতে তাঁর বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছুঁড়েছে বলে তৃণমূলের ওই নেতার পালটা অভিযোগ। এই ঘটনাকে ঘিরে ওই এলাকায় রাজনৈতিক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। আতঙ্কে এলাকাবাসী। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: পানীয় জল নেওয়া নিয়ে বিবাদ, প্রতিবেশীদের মারে মৃত্যু বৃদ্ধের ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে