BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মমতার শপথ রুখতে রেড রোড অবরোধের ‘হুমকি’ বিজেপির!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 23, 2016 7:51 pm|    Updated: May 24, 2016 1:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্য জুড়ে ভোট পরবর্তী হিংসা না থামলে মমতার শপথ রোখার পথেও যেতে পারে বিজেপি৷ ২৭ মে দিনিটিকে ‘ব্ল্যাক ডে’ ঘোষণা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারও চালাচ্ছেন বিজেপি সমর্থকরা৷

রবিবার আক্রান্ত হন বিজেপি নেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়৷ কাকদ্বীপে প্রহৃত দলীয় কর্মীকে দেখে ফেরার সময় তাঁর গাড়ির উপর হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা৷ অভিযোগ, পরিকল্পিতভাবেই শাসকদল রূপার উপর আক্রমণ চালিয়েছেন৷ ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ি কালীঘাট পর্যন্ত মিছিল করে বিজেপি৷ সেইসঙ্গে ২৭ মে রেড রোড অবরোধ করার ‘হুমকি’ও দেওয়া হয়৷ এদিন তাঁদের বিক্ষোভ-অবস্থানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ ছিলেন রাহুল সিনহা, লকেট চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ৷

এবারের ভোটে উল্লেখযোগ্যভাবে ভাল ফল করেছে বিজেপি৷ বামেদের পরাজয় আখেরে লাভবান করেছে এই দলটিকে৷ তিনটি আসন ও ১০ শতাংশ ভোট পেয়ে রাজ্যে নিজেদের জমি শক্ত করতে মরিয়া বিজেপি৷ আর তাই শাসকদলের বিরুদ্ধে লাগাতার আক্রমণেরই পথই তারা বেছে নিয়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা৷

 

ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস দমনে কঠোর হয়েছেন তৃণমূল নেত্রী৷ সবরকমের হিংসা থামাতে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন তিনি৷ রবিবার রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে হামলাতেও বিজেপির অভিযোগের তির শাসকদলের দিকেই৷ যদিও তৃণমূলের তরফ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে৷ জানানো হয়েছে, বিজেপির অন্তর্দ্বন্দ্বের ফলেই আক্রান্ত হয়েছেন রূপা৷ যদিও সে তত্ত্ব খারিজ করে শাসকদলের উপর চাপ বাড়িয়েছে বিজেপি৷ সোমবারের প্রতিবাদ মিছিলে দেখা গেল সে ছবিই৷ তবে এখানেই শেষ নয়৷ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানকেও নিশানা করে বিজেপি তাদের কর্মসূচি সাজিয়েছে৷ বিজেপির তরফে অভিযোগ, রাজ্যে এই মুহূর্তে গণতন্ত্রের পরিবেশই নেই৷ তাহলে সরকার গঠনের কী প্রয়োজন? এই অভিযোগেই ২৭ মে দিনটিকে ব্ল্যাক ডে ঘোষণা করে শপথ রোখার পথে যেতে পারে বিজেপি৷

প্রসঙ্গত, এবারই ট্র্যাডিশন ভেঙে রাজভবনের পরিবর্তে রেড রোডে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান করার পরিকল্পনা নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সোমবার রাত থেকেই বন্ধ করা হচ্ছে রেড রোড৷ ফলত বিজেপির কর্মসূচির জেরে শপথ গ্রহণের দিন অশান্তির আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছে না রাজনৈতিক মহল৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement