৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নবেন্দু ঘোষ, বসিরহাট: সন্দেশখালির রেশ কাটতে না কাটতে ফের বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় উত্তপ্ত হাসনাবাদ। মৃতার নাম সরস্বতী দাস। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় বাড়ির উঠোন থেকে উদ্ধার হয়েছে ওই মহিলার রক্তাক্ত দেহ। বিজেপির অভিযোগ, তৃমণূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে তাদের কর্মীকে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাত থেকে উত্তপ্ত হাসনাবাদের তকিপুর এলাকা। মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ বাহিনী। 

[আরও পড়ুন: টোটোয় ফেলে আসা গয়না প্রাপ্তি যাত্রীর! নজর কাড়ল চালকের সততা]

সন্দেশখালিতে ২ বিজেপির কর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় এখনও উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। তার উত্তাপ কাটার আগেই ফের ঝরল রক্ত। ঘটনাস্থল হাসনাবাদের তকিপুর। স্থানীয় সূত্রে খবর, এলাকায় সক্রিয় বিজেপি কর্মী হিসেবেই পরিচিত ছিলেন সরস্বতী দেবী। বৃহস্পতিবার সন্ধে নাগাদ দলীয় কর্মিসভা সেরে বাড়ি ফেরেন তিনি। এরপরই বাজারের উদ্দেশ্যে বের হয়ে যান তাঁর স্বামী শুভঙ্কর। ৯টা নাগাদ বাড়ি ফেরেন তিনি। জানা গিয়েছে, ঘরে ফিরে স্ত্রীকে দেখতে না পেয়ে ডাকাডাকি শুরু করেন। এরপর খুঁজতে খুঁজতে বাথরুমের কাছে যান। বাথরুমের পাশে রক্তাক্ত অবস্থায় স্ত্রীকে পড়ে থাকতে দেখেন তিনি। তড়িঘড়ি সরস্বতীদেবীকে উদ্ধার করে প্রথমে টাকি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যান শুভঙ্করবাবু। পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে তাঁকে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

[আরও পড়ুন: দুর্গাপুরে সিপিএম পার্টি অফিস খোলার পিছনে বিজেপির ‘সৌজন্য’? প্রশ্ন দলের অন্দরেই]

পুলিশ সূত্রে খবর, পয়েন্ট ব্ল্যাক রেঞ্জ থেকে গুলি করা হয়েছে সরস্বতীদেবীকে। প্রসঙ্গত, মাস তিনেক আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন সরস্বতী দাস। সেই থেকেই একাধিকবার হুমকির মুখেও পড়তে হয়েছে তাঁকে। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, রাজনৈতিক কারণেই খুন করা হয়েছে তাঁকে। কয়েকদিনের ব্যবধানে ফের বিজেপি কর্মী খুনের ঘটনায় উত্তপ্ত এলাকা। মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ বাহিনী। তবে, আদৌ কি রাজনৈতিক কারণেই খুন? নাকি অন্য রহস্য রয়েছে ঘটনার পিছনে, জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং