৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: ভাটপাড়া পুরসভা তৃণমূল পুনরুদ্ধারের পরই ফের অশান্ত ভাটপাড়া। মঙ্গলবার জগদ্দলের গোলঘর সুন্দিয়া মোড়ে তৃণমূল তাদের পার্টি অফিস বিজেপির থেকে পুনর্দখল করে। পার্টি অফিস পুনুরুদ্ধারের পরই বুধবার ভাটপাড়ার রিলায়েন্স জুটমিলের বিজেপির শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস তৃণমূল পুনর্দখল করতে যায়। তখনই বাধে গন্ডগোল। বোমাবাজির অভিযোগ ওঠে। এরপর পুলিশ এলে তাদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে বিজেপি সমর্থিত শ্রমিকরা।

শ্রমিকদের অভিযোগ, গতকাল রাত থেকে এলাকায় তৃণমূল আশ্রিত গুন্ডারা বোমা এবং পিস্তল নিয়ে এলাকায় সবাইকে শাসায়। কয়েকজন প্রতিবাদ করতে গেলে পুলিশ তাদের লাঠিচার্জ করে তাড়িয়ে দেয়। লাঠির ঘায়ে আহত তিন জন শ্রমিক মহলের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। তবে শ্রমিক পরিবারের অভিযোগ, তাঁদের ভয় দেখিয়ে তৃণমূল করতে বলা হচ্ছে। এই ঘটনার পর এদিন এলাকায় আসেন ভাটপাড়ার বিধায়ক পবন সিং। পবন সিং হুমকি দেন, অবিলম্বে পুলিশ কোন ব্যবস্থা না নিলে লাগাতার অনির্দিষ্ট কালের জন্য থানা ঘেরাও এবং পথ অবরোধ চলবে।

[আরও পড়ুন: দলের প্রতি আনুগত্যের ‘পুরস্কার’, ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান হলেন অরুণ বন্দ্যোপাধ্যায়]

উল্লেখ্য, ভাটপাড়ায় তৃণমূলের পর্যবেক্ষক দেবজ্যোতি ঘোষ বলেন, ‘এইসব পার্টি অফিসগুলি তৃণমূলের ছিল। বিজেপি দখল করেছে। আর ওদের বসার লোক নেই, ওরা নিজেরাই চাবি দিয়ে যাচ্ছে।’ প্রসঙ্গত, গতকালই ভাটপাড়া পুরসভায় নয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছে তৃণমূল। কঠিন সময়ে দলের প্রতি আনুগত্য দেখানোর পুরস্কার হিসাবে পুরপ্রধান পদে বসেছেন ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অরুণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং