BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্তন বাঁচিয়েই ক্যানসার মুক্তি, প্রত্যন্ত এলাকায় জটিল সার্জারি করে তাক লাগালেন তরুণী ডাক্তার

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 9, 2020 11:36 am|    Updated: September 9, 2020 3:37 pm

An Images

ছবিটি: প্রতীকী।

গৌতম ব্রহ্ম: শিকড়ে রোগ ধরেছে। মারণ রোগ। গাছ বাঁচিয়ে রোগকে নিকেশ করতে হবে। স্তন বাঁচিয়ে স্তন ক্যানসারের (Breast Cancer) অস্ত্রোপচার অনেকটা এমনই জটিল ও দুরুহ কাজ। বাঘা অঙ্কোসার্জনরাও যা করতে দ্বিধায় থাকেন, ব্রেস্ট ক্যানসারের সেই কনজারভেটিভ সার্জারি সফল ভাবে করে তাক লাগিয়ে দিলেন সদ্য এমএস পাস এক তরুণী। করোনা আবহের সংকটকালে নন্দীগ্রামের মতো প্রত্যন্ত এলাকার এই ঘটনা আপামর চিকিৎসক মহলের তারিফ কুড়িয়েছে।

ডা. মোনালিসা খান। যাদবপুরের কেপিসি মেডিক্যালের ছাত্রীটি এসএসকেএম থেকে এ বছরেই এমএস  (MS) করেছেন। পিজির ব্রেস্ট ইউনিটে ডা. দীপ্তেন্দ্র সরকারের অধীনে হাত-কলমে ব্রেস্ট কনজার্ভেশন সার্জারির তালিম নিয়েছেন। কিন্তু তিনি যে নিজের গ্রামে ফিরে সাহস করে একাই অপারেশন করে এক গ্রাম্যবধূকে এ ভাবে শাপমুক্ত করবেন, এতটা কেউ ভাবেননি।

[আরও পড়ুন : মানসিক অবসাদগ্রস্তদের জন্য বিশেষ উদ্যোগ, ২৪X৭ টোল ফ্রি হেল্পলাইন নম্বর চালু করল কেন্দ্র]

৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসে ছাত্রীর এহেন সাফল্যের বৃত্তান্ত শুনে দীপ্তেন্দ্রবাবু আপ্লুত। ওই দিনই রোগিণীর পোস্ট অপারেটিভ বায়পসি রিপোর্ট আসে। দেখা যায়, স্তন থেকে ক্যানসার গায়েব। “শিক্ষক দিবসে এর চেয়ে ভাল গুরুদক্ষিণা আর কী হতে পারে!”– প্রতিক্রিয়া দীপ্তেন্দ্রবাবুর। ওঁর কথায়, “টাটা মেমোরিয়াল সেন্টার ও পিজির মতো হাতে গোনা কয়েকটা জায়গায় কনজার্ভেশন ব্রেস্ট সার্জারি হয়। সেখানে মেদিনীপুরের অজ পাড়াগাঁয়ের নার্সিংহোমে বসে মেয়েটি এমন কঠিন অপারেশন করল! মাস্টারমশাই হিসাবে আমি গর্বিত।”

সাহানা খাতুন নামে বছর পঞ্চাশের ওই মহিলার ডান দিকের স্তনে ব্যথা হচ্ছিল। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ধরা পড়ে, ব্রেস্ট ক্যানসার। নন্দীগ্রাম সীতানন্দ কলেজের উল্টোদিকে একটি নার্সিংহোমে ২৩ আগস্ট ভরতি করা হয়। মোনালিসা জানালেন, ২৪ আগস্ট অপারেশন হয়েছে। ‘ব্রেস্ট কনজারভেটিভ সার্জারি’ করায় স্তন বাদ দিতে হয়নি। ২৮ আগস্ট সাহানাদেবীকে ছুটি দেওয়া হলেও মোনালিসার মনে একটা শঙ্কা ছিল। পোস্ট অপারেটিভ বায়পসি রিপোর্ট ঠিকঠাক থাকবে তো? ৫ সেপ্টেম্বর রিপোর্ট পেয়েই মাস্টারমশাই তথা পিজির অঙ্কোসার্জন অধ্যাপক সরকারকে জানান।

[আরও পড়ুন : শিশুদের হৃৎপিন্ডে মারাত্মক আঘাত হানছে করোনা ভাইরাস, দাবি মার্কিন গবেষকদের]

ডা. সরকার বললেন, “২০০১ সালে আমি প্রথম ব্রেস্ট কনজারভেটিভ সার্জারি করেছিলাম। তখন ইতালি-সহ সামান্য কয়েকটা দেশে এই অপারেশন হতো। তখন আমায় নিয়ে ঠাট্টা করেছিলেন কিছু প্রবীণ অঙ্কোসার্জন। আর এখন আমার ছাত্রীরা গ্রামে-গঞ্জে তা করছে! একজন শিক্ষকের কাছে এ মস্ত প্রাপ্তি।” মোনালিসার  সাফল্যে খুশি রাজ্যের ক্যানসার চিকিৎসকরাও। বর্ষীয়ান ক্যানসার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসাজ্যোতি ডা. শঙ্কর নাথ থেকে পিজির তরুণ হেড-নেক অঙ্কোসার্জন ডা. সৌরভ দত্ত, সবার মুখে একটাই কথা–মোনালিসার এই অস্ত্রোপচার নিঃসন্দেহে মাইলস্টোন। সীমিত পরিকাঠামো নিয়েও অনেকে এবার ওঁর মতো সাহস দেখাবেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement