ad
ad
Alipurduar

পারিবারিক বিবাদে লাগল রাজনৈতিক রং, মদ্যপের ধারাল অস্ত্রে জখম বিজেপি নেতার ভাই

এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই বলে দাবি তৃণমূলের।

Brother of a BJP leader of Alipurduar injured by sharp weapon of intoxicated youth । Sangbad Pratidin
Published by: Arupkanti Bera
  • Posted:April 4, 2021 9:34 pm
  • Updated:April 4, 2021 9:34 pm

রাজ কুমার, আলিপুরদুয়ার: আলিপুরদুয়ারের (Alipurduar) মহাকালগুড়ি এলাকায় এক নেশাগ্রস্ত যুবকের হাত থেকে নিজের মাকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর আহত হলেন বিজেপি (BJP) নেতার ভাই। আক্রমণকারী যুবক তৃণমূল (TMC) সমর্থক বলে জানা গিয়েছে। আর তাই নির্বাচনী (West Bengal Assembly Election 2021) আবহে এই ঘটনায় রাজনৈতিক রং লেগেছে বলে দাবি স্থানীয়দের। আক্রমণকারীকে স্থানীয়রা পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন।

মহাকালগুড়ি গ্রামপঞ্চায়েতের ধারসি গ্রামের বাসিন্দা চিরঞ্জিত দেবনাথ। রবিবার সকালে হঠাৎই ধারাল অস্ত্র নিয়ে তাঁর মাকে আক্রমণ করেন। চিৎকার শুনে প্রতিবেশী অর্জুন এবং তাঁর ভাই অসীম দেবনাথ ছুটে যান। মহিলাকে বাঁচাতে গিয়ে চিরঞ্জিতের অস্ত্রের কোপ পড়ে অসীমের হাতে ও ঘাড়ে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে আলিপুরদুয়ার পরে সেখান থেকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। স্থানীয় বাসিন্দারা চিরঞ্জিতকে বেঁধে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং চিরঞ্জিতকে নিয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: ‘এটা ইলেকশন নাকি বিজেপির সিলেকশন, কার প্রমোশন হচ্ছে নজর রাখছি’, বারুইপুরে কমিশনকে এক হাত মমতার]

অসীম, আলিপুরদুয়ার বিজেপির জেলা সম্পাদক অর্জুনের ভাই। অসীমকে দেখতে হাসপাতালে যান বিজেপি জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা। গঙ্গাপ্রসাদ বলেন, “অর্জুনের ভাইকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আক্রমণ করেছে। তিনি এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। ১০ এপ্রিল ইভিএম মেশিনে মানুষ এর বদলা নেবে।”

তৃণমূল অবশ্য এই ঘটনাকে পারিবারিক বিবাদ বলেই দাবি করেছে। আক্রমণকারী যুবক চিরঞ্জিত মানসিক ভারসাম্যহীন বলেও দাবি করা হয়েছে। এলাকায় যান স্থানীয় গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান অঞ্জলি বিশ্বাস। তিনি বলেন, “অভিযুক্ত যুবক এর আগেও একাধিকবার এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। ওই যুবক সকলের সঙ্গেই এমন করেন। এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই।”

[আরও পড়ুন: ফাঁদে ফেলেই কি জওয়ানদের হত্যা করল মাওবাদীরা? বিজাপুর সংঘর্ষ নিয়ে উঠছে প্রশ্ন]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ