BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শুভেন্দুর পর সুনীল মণ্ডল, Y+ ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পেলেন বর্ধমান পূর্বের সাংসদ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: December 30, 2020 11:25 am|    Updated: December 30, 2020 11:25 am

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) পর এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেলেন সাংসদ সুনীল মণ্ডল (Sunil Mandal)। মঙ্গলবার থেকে তাঁকে Y+ ক্যাটেগরির নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি কলকাতায় বিজেপি কার্যালয়ে যাওয়ার পথে বর্ধমান পূর্ব কেন্দ্রের সাংসদের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছিল। যা নিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। তোপ দেগেছিলেন রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে। বিষয়টি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকেও জানিয়েছিলেন। এরপরই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেলেন সুনীল।

এবিষয়ে সুনীল মণ্ডল ফোনে বলেন, “এই রাজ্যে কেউই সুরক্ষিত নয়। পুলিশ তৃণমূলের দলদাসে পরিণত হয়েছে। তাই কেন্দ্রীয় সরকার আমার জন্য Y+ ক্যাটেগরির নিরাপত্তা দিয়েছে।” জানা গিয়েছে, সুনীলবাবুর নিরাপত্তায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর ১১ জন সশস্ত্র কর্মী সবসময় থাকছেন। বর্ধমান পূ্র্ব কেন্দ্র থেকে দুইবার তৃণমূলের টিকিটে সাংসদ নির্বাচিত হন সুনীলবাবু। সপ্তাহখানেক আগে মেদিনীপুরে অমিত শাহর সভায় গিয়ে বিজেপিতে (BJP) যোগদান করেন তিনি। তার কয়েকদিন পরেই কলকাতায় বিজেপির রাজ্যে কার্যালয়ে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে তাঁর গাড়ির উপর হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যা নিয়ে সরগরম হয় রাজ্য রাজনীতি। বিষয়টি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যন্ত গড়ায়। তারপরই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেলেন সুনীল মণ্ডল। এদিন তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন সুনীলবাবু।

[আরও পড়ুন: অর্জুনগড়ে বিজেপির ডাকে জনস্রোত, শুভেন্দুর সঙ্গে মিছিলে বাবুল-সৌমিত্র-শুভ্রাংশু]

অভিযোগের সুরে এদিন তিনি বলেন, তৃণমূলেরই একটা বড় অংশ গত লোকসভা নির্বাচনে তাঁকে হারাতে সক্রিয় হয়েছিল। কিন্তু তৃণমূলের কিছু ভাল নেতা যারা ওই দলে কোণঠাসা হয়ে রয়েছে, তাঁরা তাঁকে জেতাতে সহায়তা করেন। তিনি আরও বলেন, “এপ্রিল মাসে তৃণমূল দলটাই উঠে যাবে। বিধানসভা ভোটে প্রার্থী খুঁজে পাবে না তৃণমূল। তৃণমূলের অনেকেই এখন আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। সবাই যোগ দেবেন বিজেপিতে।”

[আরও পড়ুন: নমুনা পরীক্ষা বাড়তেই বাংলায় বাড়ল দৈনিক করোনা সংক্রমণ, বৃদ্ধি পেল মৃতের সংখ্যাও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement