৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অচেনা ব্যক্তিকে পুলিশ ভেবে ব্যবসায়ীর ধাক্কা, খালে পড়ে মৃত্যু যুবকের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 24, 2018 8:24 am|    Updated: January 24, 2018 8:24 am

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: বাবা দেখে ফেলতে পারেন। এই কারণে গাড়ি থেকে নেমে একটু দূরে সিগারেট ধরিয়েছিলেন যুবক। একটি পান, সিগারেটের দোকানের কাছে সুখটান দিচ্ছিলেন। রাতের অন্ধকারে অচেনা একজনকে দেখতে পেয়ে দোকানি চিন্তায় পড়ে যান। আসল তার দোকানে যে মদ বিক্রি হয়। পুলিশ হানা দিয়েছে, এই ভয়ে পালাতে গিয়ে ওই যুবকের গায়ে সজোরে ধাক্কা দেন ওই ব্যবসায়ী। খালের জলে পড়ে বেঘোরে মৃত্যু হল যুবকের।

[কেউ কিছু করতে পারবে না, আত্মীয়কে মেরে সিভিক ভল্যান্টিয়ারের ‘দাদাগিরি’]

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রাতে বর্ধমান থেকে ফিরছিলেন রাজু। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বাবা ও ভাই। জামালপুরের আঝাপুরের হাটতলার কাছে বাঁধের ধারে একটা পানের গুমটির সামনে তাঁরা গাড়ি থামান। রাজু গাড়ি থেকে নেমে গুমটির পিছনে একটা সিগারেট ধরায়। এদিকে গুমটি মালিক শুভেন্দু বিশ্বাস আগন্তুককে দেখে ভাবেন পুলিশের লোক এসেছে। আর দূরে গাড়ি দাঁড়িয়ে আছে। দোকানে যেহেতু আড়ালে মদ বিক্রি হয় তাই ভয় পেয়ে যায় শুভেন্দু। আতঙ্কে দোকান বন্ধ করে পালাতে গিয়ে রাজুকে সে অতর্কিতে ধাক্কা দেয়। ধাক্কায় রাজু ডিভিসর ক্যানেলের জলে ছিটকে পড়েন। শুভেন্দুও জলে পড়ে যায়। কিন্তু সে উঠে পড়ে। এদিকে ক্যানেলের স্রোতে ভেসে যান রাজু। খবর ছড়িয়ে পড়তেই স্থানীয়রা সেখানে ছুটে যান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান জামালপুরের বিডিও সুব্রত মল্লিক। বিস্তর খোঁজাখুঁজির পর সিভিল ডিফেন্সের দল বুধবার সকালে রাজুর দেহ উদ্ধার করে।

[আচমকা উধাও সিভিক ভল্যান্টিয়াররা, সুযোগে বিনা হেলমেটে বাড়ছে যাত্রা]

স্থানীয় বাসিন্দা মনোজ শর্মার অভিযোগ গুমটিতে পান, বিড়ি, সিগারেট বিক্রির আড়ালে মদ বিক্রি হত। তাই দোকানদার ভয়ে ভয়ে থাকত। পালাতে গিয়ে ওই ব্যবসায়ী এই কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলে। এই বিষয়ে বিডিও সুব্রত মল্লিক জানান, গুমটিতে নিষিদ্ধ কিছু বিক্রি হত। এই কারণে গুমটি মালিক পালাতে গিয়ে এই ঘটনা ঘটায়। পুলিশ অভিযুক্ত দোকানদারের খোঁজ চালাচ্ছে। এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ পুলিশের একাংশের মদতে বেআইনিভাবে মদ বিক্রি হত।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement