১৫ মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

শিশু দিবসে নজিরবিহীন ঘটনা! স্কুলে গিয়ে মিড ডে মিলই পেল না খুদে পডুয়ারা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 14, 2022 9:03 pm|    Updated: November 14, 2022 9:03 pm

Burdwan school deny students mid-day meal on Children's Day | Sangbad Pratidin

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: শিশু দিবসে নজিরবিহীন ঘটনা। সোমবার স্কুলে গিয়ে মিড ডে মিল পেল না বর্ধমান (Burdwan) মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুলের প্রাথমিক বিভাগের পড়ুয়ারা। রাঁধুনি না আসায় স্কুলে এদিন রান্নাই হয়নি।‌ তবে শিশু দিবস (Childrens Day) উপলক্ষে স্কুলের শিক্ষকরা পড়ুয়াদের কেক খাইয়েছেন। সেটাই এদিনের মিড ডে মিল। শিশু দিবসে আচমকা রাঁধুনি না আসা ও মিড ডে মিল রান্না না হওয়া নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পুরসভার চাপানউতোর শুরু হয়েছে। স্কুল কর্তৃপক্ষ রাঁধুনিদের গত এক বছরের নথি জমা না দেওয়ায় এই সমস্যা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বর্ধমান পুরসভার চেয়ারম্যান পরেশচন্দ্র সরকার স্কুল কর্তৃপক্ষকে আগামী বুধবারের মধ্যে নথি জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

শহরের অন্যতম নামী স্কুল এটি। এই স্কুলের হাইস্কুলের বাংলা মাধ্যম ও ইংরেজি মাধ্যম বিভাগে এদিন নিয়মমত মিড ডে মিল‌ (Mid day meal) রান্না হয়েছে। কিন্তু প্রাথমিক বিভাগে এদিন রান্নাই হয়নি রাঁধুনি না আসার কারণে। ফলে পড়ুয়ারা এদিন বঞ্চিত হয়েছে দুপুরের খাবার থেকে। এই স্কুলের প্রাথমিক বিভাগে পড়ুয়া রয়েছে ৪১৭ জন। প্রায় সকলেই মিড ডে মিল খেয়ে থাকে। কিন্তু এদিন স্কুলে মিড ডে মিল না হওয়া প্রসঙ্গে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ পাল জানান, তিনি ছুটিতে রয়েছেন। তবে এর জন্য পুরসভার কোর্টে বল ঠেলেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘অখিল অন্যায় করেছে, দলের তরফে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি’, রাষ্ট্রপতি ইস্যুতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী]

বিশ্বজিৎবাবুর দাবি, স্কুলের ৬ জন রাঁধুনির মধ্যে ৪ জনের পারিশ্রমিক সেই ২০২১ সালের ডিসেম্বর থেকে বকেয়া রেখেছে বর্ধমান পুরসভা (Burdwan Municipality)। তারা ২ জনের পারিশ্রমিক দেয়। সেই টাকাই প্রতি মাসে ৬ জনকে ভাগ করে দেন তাঁরা। তিনি বলেন, “বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। কোনও সুরাহা হয়নি। পারিশ্রমিক না পাওয়ার কারণে রাঁধুনিরা হয়তো এদিন আসেনি। তাই পড়ুয়ারা মিড ডে মিল পায়নি। তবে ঠিক ঘটেছে তা স্কুলে গেলে বলতে পারব।”

[আরও পড়ুন: বিরসা মুন্ডার জন্মদিনে বাঁকুড়ায় শুভেন্দু অধিকারীর সভার অনুমোদন দিল হাই কোর্ট]

যদিও প্রধান শিক্ষকের দাবি মানতে নারাজ পুরসভা। এদিন পুরসভার তরফে বিভিন্ন স্কুলে মিড ডে মিলের বিষয়ে পরিদর্শনে গিয়েছিলেন কর্মীরা। তখনই নজরে আসে বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল হাই স্কুলের প্রাথমিক বিভাগে মিড ডে মিল হয়নি। পুরকর্মী পুরসভায় এই বিষয়ে রিপোর্ট দিয়েছেন। পুরসভার চেয়ারম্যান পরেশবাবু স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিতোগ তুলেছেন। তিনি বলেন, “গত বছরের ডিসেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ওই স্কুলের তরফে রাঁধুনিদের অনেকের কোনও নথি জমা দেওয়া হয়নি। আমরা দু’জনের পারিশ্রমিক নিয়মিত দিয়েছি। আগামী বুধবারের মধ্যে স্কুল কর্তৃপক্ষকে রাঁধুনিদের বকেয়া নথি জমা দিতে বলা হয়েছে। মিড ডে মিলের যে সমস্যা রয়েছে চলতি সপ্তাহেই তা মিটিয়ে দেওয়া হবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে