BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

CAA বিক্ষোভ: অশান্তির জেরে ব্যাপক ক্ষতি সামলাতে ৮ কোম্পানি বাহিনী আনছে রেল

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: December 16, 2019 9:52 am|    Updated: December 16, 2019 6:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চতুর্থ দিনে পড়ল এ রাজ্যের CAA বিরোধী বিক্ষোভ। সোমবারও সকাল থেকে বিভিন্ন জেলায় জেলায় শুরু বিক্ষোভ।বাতিল একাধিক লোকাল ও দূরপাল্লার ট্রেন। চূড়ান্ত ভোগান্তির শিকার মানুষ। 

সন্ধে ৬. ৩০: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বেশ কয়েকটি শাখায় সন্ধে পর্যন্ত বন্ধ ট্রেন চলাচল। 

বিকেল ৪.৩০: কয়েকদিনে তাণ্ডবে বিক্ষোভকারীদের নিশানায় রেল। ক্রমাগত তাণ্ডব চলেছে স্টেশনে। বাদ যায়নি জাতীয় সড়ক থেকে বাসস্ট্যান্ড। পরিস্থিতি সামাল নিতে রাজ্যে আনা হচ্ছে ৮ কোম্পানি বাহিনী।  

দুপুর ৩.২৫: ফের প্রতিবাদের নামে ট্রেনে হামলা। বহড়ুতে লক্ষ্মীকান্তপুর লোকালে হামলা চালাল বিক্ষোভকারীরা। ট্রেন লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি ছোঁড়া হল পাথর।Basuldanga-CAB-protest

 

দুপুর ৩.০০: নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে সোমবার ফের উত্তপ্ত হাওড়া। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাঁদের ঘিরে শুরু হয় বিক্ষোভ। বাধ্য হয়ে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।  

দুপুর ২.৪৫: বীরভূমের সাঁইথিয়া, মুরারই-সহ বিভিন্ন স্টেশনে দফায় দফায় চলছে বিক্ষোভ। ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরুদ্ধ করে জ্বালানো হচ্ছে টায়ার।

দুপুর ২.২০: আকড়া স্টেশনে ভাঙচুরের ঘটনার জেরে এখনও স্তব্ধ শিয়ালদহ-বজবজ শাখার ট্রেন চলাচল। চূড়ান্ত সমস্যার সম্মুখীন যাত্রীরা। স্টেশনে মোতায়েন পুলিশ বাহিনী।

CAA-protest-akra

দুপুর ১.৩০: সকালের পর দুপুরে ফের রাজারহাটের চৌমাথায় জড়ো হন নাগরিকত্ব বিরোধীরা। বিক্ষোভের জেরে বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল।  

দুপুর ১২.৩০: চোপড়ায় শুরু নাগরিকত্ব আইন বিরোধী বিক্ষোভ। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে একের পর এক জ্বলছে টায়ার। বিক্ষোভের জেরে কার্যত স্তব্ধ যান চলাচল। পরিস্থিতি সামাল দিয়ে মোতায়েন প্রচুর পুলিশ। 

সকাল ১১.৫০: ঘাটালের দাসপুর, বীরভূমের দুবরাজপুর ও কোচবিহারে হরিণচওড়া এলাকায় শুরু বিক্ষোভ। রাস্তা আটকে জ্বালানো হচ্ছে টায়ার। 

সকাল ১১.০০: মালদহের শ্রীপুর স্টেশনে শুরু বিক্ষোভ। উত্তর মালদহে স্তব্ধ বাস পরিষেবা। 

সকাল ১০.৪৫:  রবিবার ভালুকা স্টেশনে ভাঙচুরের ঘটনায় ইতিমধ্যেই ১৮ জনকে  গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে অধিকাংশই বিহারের বাসিন্দা বলে সূত্রের খবর। সেই কারণেই ইতিমধ্যেই বাংলা-বিহার সীমান্তে বাড়ানো হচ্ছে নিরাপত্তা। 

সকাল ১০.৩০: হলদিয়া-মেচেদা সড়কের নন্দকুমারে অবরোধ। রাস্তায় দাউ দাউ করে জ্বলছে টায়ার, কাঠ। বন্ধ দিঘাগামী যান চলাচল। নদিয়ার শিমুরালিতে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক আটকে চলছে বিক্ষোভ। আটকে পড়েছে প্রচুর বাস, গাড়ি থেকে অ্যাম্বুল্যান্স। কলকাতার নিউটাউনের ছবিটাও কার্যত এক। 

CAB-protest

সকাল ৯.৩০: শিয়ালদহ থেকে ডায়মন্ড হারবার ও বজবজ শাখায় ট্রেন চলাচল বন্ধ। মু্র্শিদাবাদ শাখার ট্রেন যাচ্ছে কৃষ্ণনগর পর্যন্ত। ফলে গন্তব্যে পৌঁছতে শিয়ালদহ স্টেশনে এসেও বাড়ি ফিরতে হচ্ছে যাত্রীদের। কেউ আবার বিকল্প পথে গন্তব্যে পৌঁছনোর চেষ্টা করছেন।

CAA-PROTEST-TILDANGA

সকাল ৯.০০: হাওড়ার দাদপুর, আমতা, পূর্ব মেদিনীপুরের সুতাহাটায় রেল লাইনে অবরোধ বিক্ষোভকারীদের। সকাল থেকেই একাধিক স্টেশনে দাঁড়িয়ে ট্রেন। হাওড়া থেকে বাতিল একাধিক দূরপাল্লার ট্রেন। 

[আরও পড়ুন: দুমকা যাওয়ার পথে অন্ডালে প্রধানমন্ত্রী, রাজ্য নিয়ে রিপোর্ট দিলেন বিজেপি নেতারা]

সকাল ৭.৩০: বিক্ষোভের জেরে দীর্ঘক্ষণ দক্ষিণ বারাসত, মথুরাপুর, জয়নগর-সহ একাধিক স্টেশনে দাঁড়িয়ে ট্রেন। সপ্তাহের শুরুতে কাজে বেরিয়ে চূড়ান্ত ভোগান্তির শিকার যাত্রীরা। 

সকাল ৬.৩০: সাতসকালেই শুরু বিক্ষোভ। লক্ষ্মীকান্তপুর লাইনে ওভারহেডে কলাপাতা। সাতসকালেই স্তব্ধ ট্রেন চলাচল।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement