১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দলীয় নেতার হুমকি, মহম্মদবাজারে বিজেপির প্রতিবাদী মঞ্চ গঠন কর্মীদের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 8, 2019 7:13 pm|    Updated: June 8, 2019 7:13 pm

Cadres furious over BJP leader threatens at Birbhum

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: দলীয় কর্মিসভায় ফের হুমকি দিলেন বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কালোসোনা মণ্ডল। প্রতিবাদে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ের নাম মুছে সেখানে প্রতিবাদী মঞ্চের নাম লিখল মহম্মদবাজারের বলিহারপুর গ্রামের বাসিন্দারা। একইসঙ্গে দেওয়ালে আঁকা পদ্মফুলের পরিবর্তে মশাল চিহ্ন এঁকে দিলেন প্রতিবাদীরা। পাশাপাশি, বলিহারপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায় তাঁকে উদ্দেশ্য করে কালোসোনা মণ্ডল প্রকাশ্যে গালিগালাজ করেছে দাবি করে মহম্মদবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। বিজেপির জেলা সভাপতি রামকৃষ্ণ রায় বলেন, ‘বলিহারপুরে আমাদের কোনও দলীয় দপ্তর ছিল না। তবে কালোসোনা মণ্ডলের বক্তব্য নিয়ে কেউ আমার কাছে কোনও অভিযোগ করেননি।’ কালোসোনা মণ্ডল জানান, ‘আমি নির্দিষ্ট কারও নাম উল্লেখ করে কোনও অভিযোগ করিনি। কেউ নিজে প্রচারের আলোয় আসতে চেয়ে দলকে ও আমাকে ব্যবহার করতে চাইছে। মামলা হলে আদালতে দেখা হবে।’

শুক্রবার সন্ধ্যায় মহম্মদবাজারের সেরেন্ডা গ্রামে কর্মিসভা ছিল বিজেপির। মহম্মদবাজারের দায়িত্বে থাকা কালোসোনা মণ্ডল সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ফের হুমকি দেন বলে অভিযোগ। উল্লেখ্য এর আগে মহম্মদবাজারের রামপুরে পুলিশকে পেটানোর কথা বলেন। চলতি সপ্তাহে তারাপীঠে পুলিশের জিভ ছিঁড়ে নেওয়ার হুমকি দেন। ফের শুক্রবার কর্মীদের সামনে মহম্মদবাজারে তিন তৃণমুল নেতার নাম করে হুমকি দেন। কালোসোনাবাবু বলেন, ‘তৃণমূলের সব কার্যকর্তাদের দল সাদরে নেবে। কিন্তু যারা মা-বোনেদের উপর অত্যাচার করেছে, ধর্ষণকারী, বিজেপি কর্মীদের উপর অত্যাচার করেছে, সম্পত্তি লুট করেছে তাদের বিজেপিতে কোনও স্থান হবে না। কালী, বিশ্বজিৎ, তাপস সিনহাদের বিজেপি দলে নেবে না।’

এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার মহম্মদবাজার থানায় অভিযোগ করেন এককালে সিপিএম, কংগ্রেসে দলবদল করা বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়। দশ বছর রাজনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন বিশ্বজিৎবাবু দাবি করেছেন, তাঁকে উদ্দেশ্য করেই গালিগালাজ করেছেন কালোসোনাবাবু। তাঁরই অনুগামী বলে পরিচয় দিয়ে বলিহারপুরের স্বপন সাহা লোকজন নিয়ে বলিহারপুর বাসস্ট্যান্ডে তারই তৈরি বিজেপি কার্যালয়ের নাম মুছে সেখানে প্রতিবাদী মঞ্চের নাম লিখে দেন। দুবারের কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্য স্বপনবাবু জানান, ‘স্কুলের শিক্ষক বিশ্বজিৎবাবুকে এভাবে অপমান আমরা মেনে নিতে পারছি না।’ তিনি জানান, ‘এ নিয়ে বিজেপিতে কোনও প্রতিবাদ করিনি। এমনকি কালোসোনাবাবুকেও কিছু বলিনি। তবে এখনই বিজেপি ছাড়ব কিনা ঠিক করিনি। আমার মনে হল তাই করেছি।’

এদিকে কালোসোনাবাবু বলেন, ‘আমি বিশ্বজিতের নাম উল্লেখ করেছি ঠিকই। কিন্তু যিনি অভিযোগ করেছেন, তাকেই বলেছি তার প্রমান তিনি দিতে পারবেন কি? তাছাড়া বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায় রাজনীতি ছাড়লেও তাঁর কার্যকলাপ এলাকার মানুষ জানেন। তিনি সুযোগ বুঝে ফের প্রচারে আসতে চাইছেন।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে