BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘হাত ধরবেন না’, সিবিআই আদালতে মেজাজ হারিয়ে অফিসারদের ধমক এনামুলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 24, 2020 2:31 pm|    Updated: December 24, 2020 2:31 pm

Cattle smuggler Enamul loses cool at court premises, abuses CBI officers| Sangbad Pratidin

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: আদালতে পেশ করতেই মেজাজ হারাল গরুপাচার কাণ্ডে ধৃত কুখ্যাত ব্যবসায়ী এনামুল হক (Enamul Haque)। বৃহস্পতিবার আসানসোল সিবিআই (CBI)আদালত চত্বরে অফিসারদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে গরু পাচার কাণ্ডে ধৃত এনামূল হক। তাকে ক্যামেরাবন্দি করতে থাকা সংবাদমাধ্যমের কর্মীদেরও মারতে উদ্যত হন বলে অভিযোগ। তবে এক আইজীবীর মৃত্যুতে এদিন গরু পাচার সংক্রান্ত মামলার শুনানি স্থগিত হয়ে যায়। ৩০ ডিসেম্বর পরবর্তী শুনানি। 

বৃহস্পতিবার এনামুলকে আসানসোল (Asansol) ফৌজদারি আদালতের বিশেষ সিবিআই আদালতে পেশ করার কথা ছিল। তাকে সেইমতো আদালত চত্বরে নিয়ে আসা হয়। অফিসারের যখন তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে হাত ধরে আদালতে নিয়ে যাচ্ছিলেন, সেসময় তিনি হাত ছাড়িয়ে নেন। অফিসারদের রীতিমতো ধমক দিয়ে হিন্দিতে বলেন, ”হাত ধরবেন না। হাত ছাড়ুন। মিডিয়ার সামনে বেশি দেখাচ্ছেন?” এরপর নিজেই আদালতের ভিতর ঢুকে পড়েন। এখানেই থেমে থাকেনি এনামুল। তার ছবি ক্যামেরাবন্দি করায় আদালতে ঢোকার মুখে সংবাদ কর্মীদেরও দিকেও তেড়ে যায় গরু পাচার কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত এই ব্যবসায়ী। এই প্রথম নয়, এনামূল আসানসোল জেল হেপাজতে থাকাকালীনও মেজাজ হারিয়েছিল বলে খবর।

[আরও পড়ুন: দেহের উপর বিজেপির পতাকা! তৃণমূল কর্মী খুনের অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত তুফানগঞ্জ]

তবে এনামুলকে আসানসোল বিশেষ সিবিআই আদালতে তোলা হলেও শুনানি হয়নি। আসানসোল আদালতে এক আইনজীবীর মৃত্যুর কারণে বৃহস্পতিবার শুনানি স্থগিত হয়ে যায়। আগামী ৩০ ডিসেম্বর ফের শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। বিচারক জয়শ্রী বন্দ্যোপাধ্যায় দু’পক্ষের আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলে নির্দেশ দেন, ততদিন পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকবে এনামুল।

[আরও পড়ুন: ‘ভারতের ঐক্যর প্রতীক বিশ্বভারতী’, কবিগুরুর আদর্শে দেশ গড়ার আহ্বান মোদির]

গত ১১ ডিসেম্বর গরু পাচারকাণ্ডে এনামুলকে আদালতে হাজির করার পর তার ১৪ দিনের জেল হেফাজত হয়। ১৪ দিনের। তবে জেল হেফাজতে থাকা এনামূলকে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে সিবিআই হাই কোর্টে একটি আবেদন দায়ের করেছিল। সিবিআইয়ের সেই আবেদনের ভিত্তিতে গত বৃহস্পতিবার হাই কোর্টের বিচারপতি তীর্থঙ্কর ঘোষ মামলার রায়ে সিবিআইকে ১৯ ডিসেম্বর থেকে ৫ দিন হেফাজতে নেওয়ার নির্দেশ দেন। সেইমতো গত শনিবার সকালে সিবিআইয়ের একটি দল কলকাতা থেকে আসানসোল বিশেষ সংশোধনাগারে আসে। কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী সিআরপিএফের জওয়ান ও সিবিআই অফিসারের এনামুলকে কলকাতা নিয়ে যান। তারপরেই আদালতের নির্দেশ মেনে এদিন আসানসোল বিশেষ সিবিআই আদালতে হাজির করা হয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে