×

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

২ চৈত্র  ১৪২৫  সোমবার ১৮ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর : এবার লোকসভায় ‘নাকা চেকিং’ বা তল্লাশিতে নজরদারি চালাবে সিসিটিভিও। আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন এলাকা আন্তঃরাজ্য সীমানার মধ্যে পড়ে। ফলে এই এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, দুর্গাপুর ও আসানসোলের বিভিন্ন এলাকায় ঝাড়খণ্ডের পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে তল্লাশি চালানো হবে।

বুধবার থেকেই আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলিতে এক বেসরকারি সংস্থাকে দিয়ে সমীক্ষাও করা হয়। বৃহস্পতিবার ওই এলাকাগুলিতে সিসিটিভি বসানোর কাজ শেষ হয়ে যাবে বলেই পুলিশ সূত্রে খবর। প্রতিটি চেকিংয়ে অন্তত দু’টি করে সিসিটিভি বসানো হবে। তবে আন্তঃরাজ্য সীমানাবর্তী এলাকাগুলিতে এই সংখ্যা বাড়বে বলেই জানা গিয়েছে।

[ওয়ার্ডে প্রার্থী হারলে পুরভোটে টিকিট পাবেন না কাউন্সিলররা, বার্তা ফিরহাদের]

দুর্গাপুরের মহকুমা শাসক অনির্বাণ কোলে বলেন, “পুলিশের নজরদারি ছাড়া এবার সিসিটিভির নজরদারিও থাকছে নাকা চেকিংগুলিতে। সন্দেহজনক কিছু ধরা পড়লেই পুলিশ জানাবে। একজন ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট পদমর্যাদার আধিকারিক গিয়ে তা নথিভুক্ত করে সংশ্লিষ্ট বিভাগে জানাবে। তারপর তা সরাসরি কমিশনকে জানানো হবে। পুলিশই এই সিসিটিভি দেখভাল করবে। কোথায় বসাতে হবে তাও খতিয়ে দেখবে পুলিশ।”

[ওয়ার্ডে প্রার্থী হারলে পুরভোটে টিকিট পাবেন না কাউন্সিলররা, বার্তা ফিরহাদের]

জানা গিয়েছে, বধর্মান-দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের দুর্গাপুর মহকুমা এলাকায় আন্তঃজেলা তল্লাশির ব্যবস্থা থাকছে। দুর্গাপুর থানা এলাকায় দু’টি, নিউ টাউনশিপ, কোকওভেন ও অন্ডাল থানা এলাকায় তিনটি করে পুলিশ পোস্ট বসানো হচ্ছে। দুর্গাপুর-ফরিদপুর ও বুদবুদ এলাকায় পাঁচটি এবং পাণ্ডবেশ্বর থানা এলাকায় একটি পুলিশ পোস্ট থাকবে। কাঁকসা থানা এলাকায় চারটি পুলিশ পোস্ট বসবে। এর মধ্যে দুর্গাপুরে একটি ও কাঁকসা থানা এলাকার দু’জায়গায় বাঁকুড়া জেলা পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে তল্লাশি চলবে। কাঁকসা থানা এলাকার দু’টি জায়গায় বীরভূম জেলা পুলিশের সঙ্গেও তল্লাশির ব্যবস্থা করা হয়েছে। বুদবুদে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের সঙ্গে মোট তিনটি জায়গায় নাকা চেকিং থাকবে বলেই জানা গিয়েছে। রানিগঞ্জে একটি ও হিরাপুরে একটি এলাকায় বাঁকুড়া পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে তল্লাশি করা হবে। এছাড়া জামুড়িয়ায় দু’টি জায়গায় বীরভূম জেলা পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে নাকা তল্লাশির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। কুলটি থানা এলাকাতেও একটি পুলিশ পোস্ট পাশ্ববর্তী পুরুলিয়া জেলার সঙ্গে যৌথভাবে হবে। জামুড়িয়া, কুলটি, সালানপুর, চিত্তরঞ্জন ও বারাবনী থানার পুলিশি পোস্ট ঝাড়খণ্ডের বিভিন্ন থানার সঙ্গে যৌথভাবেই করা হচ্ছে।

[মহিলাকে ধর্ষণ করে খুন! ঘর থেকে উদ্ধার অর্ধনগ্ন দেহ]

জামুড়িয়ায় একটি ঝাড়খণ্ডের জামতাড়া থানার সঙ্গে, কুলটি থানা এলাকায় দু’টি পুলিশ পোস্টে ধানবাদের চিরকুন্ডা পুলিশের সঙ্গে, সালানপুরের একটি পুলিশ পোস্টে মাইথন ও একটি ঝাড়খণ্ডের মিহিজাম পুলিশের সঙ্গে করা হচ্ছে। চিত্তরঞ্জন থানা এলাকায় দু’টি মিহিজাম ও একটি নাকা চেকিং জামতাড়া পুলিশের সঙ্গে করা হবে। বারবনি থানা এলাকার একটি জায়গাতেও জামতাড়া পুলিশের সঙ্গেই নাকা চেকিং-এর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং