BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাপি লাহিড়ী-সহ একাধিক সেলিব্রিটিকে দল থেকে ছাঁটল রাজ্য বিজেপি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 2, 2017 4:52 am|    Updated: December 23, 2019 2:09 pm

Celebs shown door, Bappi Lahiri, 40 others expelled from BJP

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাজ না করলে আগামিদিনে দলে কোনও জায়গা নেই, এই বার্তা দিয়ে রাজ্য কমিটির আমন্ত্রিত-সহ সাধারণ সদস্য থেকে চল্লিশজনকে ছেঁটে ফেলল বিজেপি৷ একসঙ্গে চল্লিশজনকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে নজিরবিহীন৷ দলে নিষি্য়তার জন্য রাজ্য কমিটির আমন্ত্রিত সদস্য থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে সংগীতশিল্পী বাপি লাহিড়ী, আরতি মুখোপাধ্যায়-সহ ব্যারি ও’ ব্রায়েনকে৷ এই সিদ্ধান্ত নিয়ে মুরলীধর সেন লেনের কর্তারা একদিকে যেমন বুঝিয়ে দিয়েছেন নিষ্ক্রিয় নেতা-কর্মীদের ভবিষ্যতের টিম বেঙ্গলে কোনও জায়গা নেই, পাশাপাশি রাজ্য কমিটির সদস্য থেকে আরও ৫০ জনকেও যে শীঘ্র সরানো হবে সেই ইঙ্গিতও দিয়েছে শীর্ষ নেতৃত্ব৷

দিলীপ ঘোষ রাজ্য বিজেপির সভাপতি পদে দায়িত্ব নেওয়ার পর আমন্ত্রিত সদস্য মিলিয়ে প্রায় তিনশোজনের নতুন রাজ্য কমিটি গঠন করা হয়েছিল৷ গত জানুয়ারি মাসে মালদহে রাজ্য কমিটির বৈঠকের আগে প্রায় ১২ জনকে সরানো হয়৷ এরপর ৪০ জনকে বাদ দেওয়ার বিষয়টি যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ৷ শুক্রবার রাজ্য বিজেপির দফতরে দলের কোর কমিটির বৈঠকেই এই ৪০ জনকে বাদ দেওয়া হয়েছে৷ ২০১৪-র লোকসভা নির্বাচনের সময় বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন বাপি লাহিড়ী, আরতি মুখোপাধ্যায়ের মতো সেলিব্রিটিরা৷ সেইসময় তাঁদের রাজ্য কমিটির আমন্ত্রিত সদস্যও করা হয়েছিল৷ পরবর্তী ক্ষেত্রে পার্টির কর্মসূচিতে তাঁদের কোনও ভূমিকা না থাকায় আমন্ত্রিত সদস্য থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে৷ রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের কথায়, “যাঁরা নিষ্ক্রিয়৷ দলের কর্মসূচিতে থাকেন না৷ তাঁরা বিজেপির কোনও পদে থাকবেন না৷”

[ভুয়ো খবরে এপ্রিল ফুলের শিকার এবার প্রাক্তন পাক মন্ত্রীও]

কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ইতিমধ্যেই বার্তা দিয়েছে, পদ আগলে বসে থাকলে চলবে না৷ নতুনদের সুযোগ করে দিতে হবে৷ কার্যত সেই নির্দেশ মেনেই রাজ্য কমিটির সদস্য হয়ে থেকে দলের কোনও উপকারে না লেগে শুধু শোভাবর্ধন করছেন যাঁরা তাঁদের বিরু‌দ্ধে ছাঁটাই প্রক্রিয়া চলবে বলে দলীয় সূত্রে খবর৷ সেলিব্রিটি হলেও তাঁদের রাখা হবে না৷ এক রাজ্য নেতা জানালেন, বিভিন্ন্ রাজনৈতিক দল থেকে অনেকেই বিজেপিতে আসছেন৷ আগামী কয়েকদিনের মধ্যে সিপিএম ও কংগ্রেসের কয়েকজন পরিচিত মুখও যোগ দিতে পারেন৷ কাজেই নতুন যাঁরা বিজেপিতে যোগদান করছেন তাঁদের রাজ্য কমিটির সদস্য করে কাজের সুযোগ করে দিতে হবে৷ ফলে নিষ্ক্রিয়দের কোনও জায়গা দলে আর থাকবে না৷

[২০১৮ সালে দেশের জিডিপি বৃদ্ধির হার হবে ৭.৭ শতাংশ: জেটলি]

এদিকে, চলতি এপ্রিল মাস থেকেই রাজ্যে দলীয় প্রচারে জোর কদমে নেমে পড়ছে বিজেপি৷ রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্র পিছু একজন করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সাংসদ-রা আসছেন সাংগঠনিক বৈঠক ও সভা করতে৷ আসছেন রাজনাথ সিং, সুষমা স্বরাজ, স্মৃতি ইরানি, রবিশঙ্কর প্রসাদ, উমা ভারতী-সহ একাধিক হেভিওয়েট মন্ত্রী থেকে সাংসদ৷ ৬ থেকে ১৪ এপ্রিল টানা নয়দিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সাংসদরা বঙ্গ সফর করবেন৷ চল্লিশজন কেন্দ্রীয় নেতা-মন্ত্রীকে এনে একেবারে উত্তরপ্রদেশের ফর্মুলাতেই বাংলায় মাঠে নামার কৌশল শুরু করে দিল বিজেপি৷ দক্ষিণ কলকাতায় থাকবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, উত্তরে স্মৃতি ইরানি, হাওড়ায় উমা ভারতী, হুগলিতে রবিশঙ্কর প্রসাদ৷ আগামী ২২ ও ২৩ এপ্রিল বর্ধমানে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে রাজ্য বিজেপির কার্যকারিণী সভা৷ সেখানেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের উপস্থিতিতে বাংলায় ভবিষ্যত্‍ রণকৌশলও ঠিক হবে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement