BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হুগলি জেলার সব বুথে থাকছে কেন্দ্রীয় বাহিনী, ঘোষণা বিবেক দুবের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 1, 2019 8:46 pm|    Updated: May 1, 2019 8:46 pm

An Images

ফাইল ফোটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হুগলি জেলার সব বুথকেই স্পর্শকাতর বলে ঘোষণা করলেন বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে।। তাই আগামী ৬ মে নির্বাচনের দিন ১০০ শতাংশ বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এপ্রসঙ্গে বুধবার বিবেক দুবে জানান, হুগলি জেলার সমস্ত স্পর্শকাতর এলাকাতে টহলদারি করবেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। পাশাপাশি চলবে এরিয়া ডমিনেশনও। এখনও পর্যন্ত এই জেলায় যা প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে তাতে স্বচ্ছ ও অবাধ নির্বাচন হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এর জন্য পর্যাপ্ত বাহিনীও রয়েছে কমিশনের হাতে। পঞ্চম দফার ভোটের দিন হুগলি জেলার অন্তর্গত শ্রীরামপুর, আরামবাগ ও হুগলি লোকসভা আসনের অন্তর্গত ১০০ শতাংশ বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে। নিয়ম অনুযায়ী, ভোটের দিন মূলত আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব রাজ্য পুলিশের। ওইদিন রাজ্য পুলিশ তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবে। আর এই কাজে তাদের সাহায্য করবে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা।

[আরও পড়ুন- ধেয়ে আসছে ‘ফণী’, প্রচারসূচিতে রদবদল মুখ্যমন্ত্রীর]

কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, হুগলি গ্রামীণ এলাকার জন্য ১৫১ কোম্পানি ও চন্দননগর কমিশনারেট এলাকার জন্য ৫১ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে। একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে মোট কতগুলি বুথ আছে তার ভিত্তিতেই বাহিনী মোতায়েন করা হবে। যদি কোনও ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে একটা বুথ থাকে তাহলে সেখান চারজন করে জওয়ান রাখা হবে।

[আরও পড়ুন- ‘২৩ মে মমতা বুঝতে পারবেন কত ধানে কত চাল’, হুঙ্কার অর্জুন সিংয়ের]

পঞ্চম দফা ভোটের পাঁচদিন আগে কমিশনের এই নির্দেশের কথা শুনে কিছুটা হলেও ভরসা পেয়েছেন হুগলির বাসিন্দারা। কারণ, গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের স্মৃতি এখনও পর্যন্ত অমলিন রয়েছে তাঁদের স্মৃতিতে। যেভাবে পঞ্চায়েতের সময় হুগলি জেলার বিভিন্ন প্রান্তে ভোট লুটের অভিযোগ উঠেছিল। তাতে লোকসভা ভোট দিতে যাবেন কিনা তাই চিন্তা করছিলেন অনেকে। কিন্তু, কমিশনের এই সিদ্ধান্তে তাঁরা কিছুটা হলেও ভরসা পেলেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement