২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাংলার ভাঁড়ারে কিঞ্চিৎ প্রাপ্তি, হাতে এল কেন্দ্রীয় বরাদ্দের মাসিক ৪১৭ কোটি টাকা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 11, 2020 1:51 pm|    Updated: September 11, 2020 3:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র থেকে প্রাপ্য বকেয়ার গোনা টাকার শেষ কিস্তি হাতে এল রাজ্যের। আর্থিক সাহায্যের আবেদন মিটল না এবারও। ছ’মাসের কিস্তিতে প্রতি মাসে গড়ে ৪১৭ কোটির একটু বেশি টাকা পেয়েছে পশ্চিমবঙ্গ-সহ মোট ১৪ রাজ্য। এই মাসেই ছিল শেষ কিস্তি। শুক্রবার সকালে টুইটারে একথা ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ (Niramala Sitharaman)। কোভিড পরিস্থিতিতে এপ্রিল মাস থেকে ৬ মাস পর্যন্ত এই টাকা পাচ্ছে রাজ্য। শুধু পশ্চিমবঙ্গই নয়, মোট ১৪ টি রাজ্যের জন্য প্রায় ৬,২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

কেন্দ্র বকেয়া মেটাচ্ছে না, এমনকী মহামারীর সংকটকালেও সেই টাকা পাওয়া যাচ্ছে না। বারবার এই অভিযোগে সরব হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সরকার। যতবারই এই বিষয়টি দিল্লির দরবারে হাজির করার সুযোগ পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী, ততবারই তা নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কোভিড পরিস্থিতি আলোচনার সময়েও এই প্রাপ্য মিটিয়ে দেওয়ার আবেদন রেখেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে বড়সড় সাফল্য সেনার, কুপওয়ারা থেকে প্রচুর অস্ত্র-সহ গ্রেপ্তার দুই জইশ জঙ্গি]

তবে গত মে মাসে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পঞ্চদশ অর্থ কমিশনের সুপারিশকে মান্যতা দিয়ে এই টাকা বরাদ্দের কথা ঘোষণা করেছিলেন। নির্মলা সীতারমণ জানান, কোভিড পরিস্থিতিতে রাজস্ব কম আদায়ের জন্য রাজ্যগুলিতে যে আর্থিক ঘাটতি হচ্ছে, তা কিছুটা পুষিয়ে দিতেই এই অর্থ মঞ্জুর করা হল। সহজ কিস্তিতে ৬ মাস টাকা দেওয়া হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ প্রতি মাসে ৪১৭ কোটির একটু বেশি টাকা পেয়েছে। সবচেয়ে বেশি টাকা পেয়েছে বামশাসিত রাজ্য কেরল। মাসে ১২৭৬ কোটি টাকা।

WB-gets-due

 

পশ্চিমবঙ্গ যদিও সংকটকালে কেন্দ্রের কাছে আর্থিক সাহায্যের আবেদন করেছিল। সেই আবেদন মেটেনি এবারও। এরই মাঝে জিএসটি’র (GST) প্রাপ্য টাকা নিয়েও নতুন করে সংঘাতে জড়িয়েছে কেন্দ্র-রাজ্য। করোনা আবহে কম জিএসটি আদায় হওয়ার পর নির্মলা সীতারমণের পরামর্শ ছিল, রাজ্যগুলো প্রয়োজনে কেন্দ্রের থেকে ধার করুক। এর বিরোধিতা করে বেশ কয়েকটি রাজ্য। এ রাজ্যের অর্থমন্ত্রী তথা GST কাউন্সিলের অন্যতম পরামর্শদাতা অমিত মিত্রর বক্তব্য ছিল, কেন্দ্র বরং ব্যাংকের কাছ থেকে ধার করে রাজ্যের পাওনা মিটিয়ে দিক। সেই দ্বন্দ্ব অবশ্য রয়েই গিয়েছে। 

[আরও পড়ুন: মে মাসেই দেশে করোনায় আক্রান্ত ছিলেন ৬৪ লক্ষ! চাঞ্চল্যকর দাবি ICMR-এর সেরো সার্ভেতে]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement