Advertisement
Advertisement

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় রাজ্যজুড়ে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা

আবহাওয়াবিদদের দাবি, আগামী এক মাসের মধ্যেই দেশে সক্রিয় হবে লা নিনার প্রভাব৷ বর্ষা ঢুকবে দেশের প্রায় সর্বত্র৷ যদিও লা নিনার খামখেয়ালিপনার শিকার হতে পারে দক্ষিণের অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, কর্নাটক, তামিলনাড়ু৷ এমনকী প্রয়োজনের তুলনায় হতে পারে কম বৃষ্টিও৷ আবার লা-নিনা প্রভাব উত্তর পূর্ব ভারতের উপর বেশি পড়লে বন্যার সম্ভাবনাও রয়েছে৷ বাদ যাবে না এ রাজ্যও৷

chance of heavy rain in west bengal
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:June 2, 2016 9:55 am
  • Updated:June 2, 2016 9:55 am

স্টাফ রিপোর্টার: ‘দস্যি ছেলে’-র দাপাদাপিতে নিরাশ হয়েছে বাঙালি৷ কিন্তু পরিস্থিতি বদলে আশা জাগাচ্ছে ‘ছোট্ট মেয়েটি’৷ যার জেরে এ বছর তো বটেই সামনের মরশুমেও ভাল বর্ষা পেতে পারে পশ্চিমবঙ্গ! মিলতে পারে ভাল শীতও৷ এই দাবি বেসরকারি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণকারী সংস্থার বিশেজ্ঞদের৷ দস্যি ছেলে ও ছোট্ট মেয়ের একটা করে ভাল নামও রয়েছে৷
আবহাওয়াবিদদের স্প্যানিশ ভাষায় ছোট্ট ছেলেটির নাম ‘এল নিনো’৷ আর ছোট্ট মেয়েটি ‘লা নিনা’৷ যাদের পরিবর্তনের জেরেই শীতে গরম ও বর্ষায় খরা হতে পারে৷ এতদিন পর্যন্ত দেশের আবহাওয়ায় চলছিল এল নিনোর দাপট৷ যার দাপাদাপির জেরে গত শীতে ঘাম ছুটেছে রাজ্যবাসীর৷ তেমনভাবে বৃষ্টি হয়নি দেশে৷ তবে পরিস্থিতি বদলের ইঙ্গিত পাচ্ছেন
আবহাওয়াবিদরা৷ ফলে এবার ভাল বর্ষা ও শীতের আশা করাই যেতে পারে বলে তাঁদের মত৷ বেসরকারি একটি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণকারী সংস্থার অভিজ্ঞ বিশেষজ্ঞ ডাঃ কান্তিপ্রসাদ রায় বলেন, “লা-নিনা হচ্ছে এল-নিনোর সম্পূর্ণ বিপরীত পরিস্থিতি৷ যা স্বাভাবিক শীত ও বর্ষা বজায় রাখতে সহায়ক৷” আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছিলেন, বঙ্গোপসাগরের জলের অস্বাভাবিক তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় রাজ্যের আকাশে প্রচুর পরিমাণে গরম জলীয় বাষ্প ঢুকে পড়ে যার জেরে বাধা পেতে হয় শীতকে৷ এল-নিনোর জেরে অসময়ে তৈরি হয় একাধিক ঘূর্ণাবর্ত যা আরও বিপাকে ফেলেছিল রাজ্যবাসীকে৷ কিন্তু এবার আবহাওয়ার বদল হতে শুরু করেছে৷ সমুদ্রের গরম হওয়া এবার উল্টো পথে ফিরতে শুরু করেছে৷ ফলে দুর্বল হতে শুরু করেছে এল নিনো৷ এর ফলে আগামী দু’মাস ভাল বর্ষার আশা তৈরি হয়েছে৷ এমনকী, আগস্ট বর্ষার পরিমাণ কিছুটা কমলেও তা স্বাভাবিকের কাছাকাছি থাকবে বলেই আশা৷ তবে বর্ষার রেশ এবার থাকবে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত৷ তাপমাত্রাও থাকবে স্বাভাবিকের ধারেকাছে৷ তবে কেরলে এবার বর্ষা কিছুটা বিলম্বিত হলেও জুনের মাঝামাঝিতেই রাজ্যে ঢুকে পড়বে বর্ষা বলেই মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা৷
আবহাওয়াবিদদের দাবি, আগামী এক মাসের মধ্যেই দেশে সক্রিয় হবে লা নিনার প্রভাব৷ বর্ষা ঢুকবে দেশের প্রায় সর্বত্র৷ যদিও লা নিনার খামখেয়ালিপনার শিকার হতে পারে দক্ষিণের অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, কর্নাটক, তামিলনাড়ু৷ এমনকী প্রয়োজনের তুলনায় হতে পারে কম বৃষ্টিও৷ আবার লা-নিনা প্রভাব উত্তর পূর্ব ভারতের উপর বেশি পড়লে বন্যার সম্ভাবনাও রয়েছে৷ বাদ যাবে না এ রাজ্যও৷
বুধবার সকালে সাময়িক বৃষ্টি স্বস্তি দিয়েছে শহরকে৷ হাওয়া অফিসের তরফে খবর, আগামী ৪৮ ঘণ্টাতেও ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে৷ উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে৷ একই সঙ্গে দক্ষিণবঙ্গের দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগনা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, কলকাতা-সহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে চলবে বজ্রগর্ভ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত৷

Advertisement

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ