৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিজেপির বাইক মিছিলকে কেন্দ্র করে রাজ্যজুড়ে অশান্তি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: March 3, 2019 3:14 pm|    Updated: March 3, 2019 4:20 pm

Clash between police and BJP workers

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির বাইক মিছিলকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। রবিবার সকালেই গোয়ালতোড়, কোচবিহার, হুগলির আরামবাগ-সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বিজেপির বাইক মিছিলে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে।  বিজেপি সংকল্প বিজয় বাইক মিছিলকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে আসানসোল, হাওড়া, দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটেও। 

[পাকিস্তানের মাটিতে এয়ারস্ট্রাইক ‘ভুয়ো’, বিস্ফোরক তৃণমূল সাংসদ]

আগে আইনি জটিলতায় বাতিল হয়েছিল বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচি। গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার ক্ষেত্রেও ক্রমাগত বাধার মুখে পড়তে হয়েছিল বিজেপিকে। এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মাঝে বিজয় সংকল্প বাইক ব়্যালি বের করার পরিকল্পনা করে গেরুয়া শিবির। যদিও উচ্চমাধ্যমিকের কারণে সেই মিছিলের অনুমতি দেয়নি পুলিশ। পরে রবিবার সকালে বিজেপির বাইক মিছিলের কর্মসূচিকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়ায় জেলায় জেলায়। জানা গিয়েছে, এদিন সকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংবনি থেকে একটি বাইক মিছিল কেলোমোড়ের দিকে যাচ্ছিল। সেই সময় রাস্তায় কর্তব্যরত ছিলেন বেশ কয়েক সিভিক ভলান্টিয়ার। অভিযোগ, মিছিলটি কেলোমোড় এলাকায় পৌঁছতেই মিছিল থেকে সিভিক ভলান্টিয়ারদের লক্ষ্য করে ইট ছোড়া হয়। এরপরই মিছিলে বাধা দেন কর্তব্যরত সিভিক ভলান্টিয়াররা। সেখানে তাদের সঙ্গে হাতাহাতি জড়িয়ে পড়ে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। অভিযোগ, বিজেপি কর্মীদের উপর লাঠিচার্জ করা হয়। দুপক্ষের ধস্তাধস্তিতে আহত হয়েছেন ৩ জন পুলিশ কর্মী। বিজেপির জেলা সভাপতি সমিত দাস জানিয়েছেন, পুলিশ ও তৃণমূল কর্মীরা তাদের মিছিলে হামলা চালিয়েছে। ভাঙচুর করা হয়েছে শতাধিক গাড়িতে। পাশাপাশি, সিভিক ভলান্টিয়ারদের আক্রমণের বিষয়টিও অস্বীকার করেছেন তিনি।

[বিজেপির বাইক মিছিল ঘিরে শহরে উত্তেজনা, পুলিশকে হুঁশিয়ারি দিলীপের]

তবে শুধু গোয়ালতোড় নয়, সকাল থেকেই জেলায় জেলায় একই ছবি সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে, বীজপুরের কাপা মোড় এলাকায় বিজেপির মিছিল আটকায় পুলিশ। আটক করা হয় বারাকপুর সাংগঠনিক জেলার সম্পাদিকা ফাল্গুনী পাত্র-সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী-সমর্থককে। এর প্রতিবাদে বীজপুর থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি কর্মীরা। অন্যদিকে, মিছিল নিয়ে আসার পথে খড়দহ স্টেশনের মুখেও পুলিশের বাধার মুখে পড়তে হয় বিজেপির কর্মীদের। সেখানে টিটাগড়ের মণ্ডল সভাপতি রবীন্দ্র সিং-সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী-সমর্থককে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। খড়দহ থানার বাইরেও বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মীরা।

কলকাতার বিভিন্ন এলাকাতেও পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি হয় বিজেপি কর্মীদের। দুর্গাপুরে মিছিলের উদ্বোধন করতে গিয়ে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে তিনি হুঁশিয়ারি দেন, “রাজ্যজুড়ে লক্ষাধিক বিজেপি কর্মী-সমর্থক বাইক নিয়ে বেরোবেন। আমরা দেখতে চাই, কতজনকে পুলিশ আটক করতে পারে। যেসব পুলিশ কর্মী মিছিল আটকাচ্ছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কমিশনে অভিযোগ জানাব।” 

দেখুন ভিডিও:

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে