২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

গ্রামে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঢোকাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক সংঘর্ষ, উত্তেজনা উলুবেড়িয়ায়

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 30, 2020 4:57 pm|    Updated: May 30, 2020 4:57 pm

An Images

মনিরুল ইসলাম, উলুবেড়িয়া: মুম্বই থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের কেন্দ্র করে শনিবার দুটি পাড়ার মধ্যে সংঘর্ষ বাধল উলুবেড়িয়ার তুলসীবেড়িয়ায়। বাড়ি ভাঙচুর, ব্যাপক বোমাবাজি হয় দু’পক্ষের মধ্যে। এই ঘটনায় দুই পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। বোমাবাজি ও ভাঙচুরের ঘটনায় পুলিশ ইতিমধ্যে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার বিকেলে মুম্বই থেকে তুলসীবেড়িয়ার সর্দার পাড়ায় আসে এলাকার ১১ জন বাসিন্দা তথা পরিযায়ী শ্রমিক। তাঁরা পাড়ায় ঢুকে যায়। শ্রমিকরা পাড়ার একপ্রান্তে একটি বাড়িতে আশ্রয় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু এতে আপত্তি জানায় খালপাড়ার বাসিন্দারা। তাঁদের বক্তব্য, কোনও ভাবেই ওই পরিযায়ী শ্রমিকদের পাড়ায় থাকা যাবে না। তাঁদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকতে হবে। বিষয়ট নিয়ে শুক্রবার থেকেই গ্রামে উত্তেজনা বাড়তে থাকে। খবর পেয়ে পুলিস ওই রাতেই ১১ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠিয়ে দেয়। পরিস্থিতি তখনকার মতো ঠান্ডা হয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: এলাকায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টার খোলায় আপত্তি, পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ স্থানীয়দের]

এদিকে খালপাড়ার বাসিন্দারা অভিযোগ তোলে রাতে ওই ১১ পরিযায়ী শ্রমিকদের কয়েকজন গ্রামে এসেছিল। বিষয়টি জানার পর এদিন রাতেই এলাকার লোকজন বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। পরে রাতেই পুলিশি হস্তক্ষেপে তাদের সিআইপিটির কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠালেও তিন যুবক যায়নি বলে অভিযোগ ওঠে। শনিবার সকালে তুলসীবেড়িয়া বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন কুমারচকগামী রাস্তা ঘেরাও করে একপক্ষ। এতে যাতায়াতে সমস্যায় পড়েন অন্যপক্ষ। শুরু হয় কটূক্তি। এরপর দুপক্ষের মধ্যে বচসা শুরু হয়ে যায়। পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হতে থাকে। পরেই তা সংঘর্ষে পরিণত হয়। লাঠি, তলোয়ার নিয়ে মারামারি শুরু হয় দু’পক্ষের মধ্যে। ব্যাপক বোমাবাজি চলে। ইটবৃষ্টি, বাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলেও অভিযোগ। গ্রামে পৌঁছায় রাজাপুর থানার পুলিশ।

পরে পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে উলুবেড়িয়া, বাগনান, আমতা থানা থেকে আরও পুলিশ বাহিনী আসে। নামানো হয় র‍্যাফ। আসেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশিস মৌর্য ও। তারপর এলাকা ঠান্ডা হয়। পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে। এক পুলিশকর্তা জানান ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগনানের বাকসী-বাগনান রোড অবরোধ করে বাকসী গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার শতাধিক বাসিন্দা। তারা রাস্তার উপরে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করে। তাঁদেরও দাবি ছিল, পরিযায়ী শ্রমিকরা যথাযথ নিয়ম মানছেন না। প্রশাসন হস্তক্ষেপ করুক।

[আরও পড়ুন: দেহে একাধিক ক্ষতচিহ্ন, মুম্বই থেকে ফেরার পথে রহস্যমৃত্যু বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement