BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

ধর্ষণের অভিযোগ তুলে নিতে চাপ, নির্যাতিতার আত্মীয়দের লক্ষ্য করে গুলি, রণক্ষেত্র বাসন্তী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 8, 2020 3:53 pm|    Updated: July 8, 2020 4:02 pm

An Images

ফাইল ছবি।

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য চাপ দিয়েও লাভ হয়নি। তাই নির্যাতিতার পরিবার ও প্রতিবেশীদের উপর হামলা চালাল দুষ্কৃতীরা। চলে গুলি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বাসন্তী। আহত হন পাঁচ জন। ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও এখনও থমথমে এলাকা। এলাকায় টহল দিচ্ছে পুলিশ।

ঘটনার সূত্রপাত মাস দেড়েক আগে। ওই সময় বাসন্তীর বছর ১৪-এর এক নাবালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠে এলাকার দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনায় নাম জড়ায় কুখ্যাত দুষ্কৃতী ফিরোজ মোল্লার। নির্যাতিতার পরিবারের তরফে তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপর রবিবার অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে বাসন্তী থানার পুলিশ। ফিরোজ মোল্লার গ্রেপ্তারির পরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে অভিযুক্তের পরিবার ও সঙ্গীরা। হামলা চালায় নির্যাতিতার পরিবার ও প্রতিবেশীদের উপর। যারা নাবালিকার পাশে দাঁড়িয়েছিল তাঁদের খুনের হুমকি দেয়। তাতে কাজ না হওয়ায় টাকা দিয়ে বিষয়টি মেটানোর চেষ্টা করে। কিন্তু কোন কিছুতেই লাভ হচ্ছে না দেখে মঙ্গলবার বিকালে ফের নাবালিকার গ্রামে হামলা চালায় ফিরোজের অনুগামীরা। এলোপাথাড়ি চালানো হয় গুলি। আহত হন পাঁচ গ্রামবাসী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় আয়ত্তে আসে পরিস্থিতি।

[আরও পড়ুন: ফের উত্তপ্ত ভাটপাড়া, অর্জুন সিংয়ের বাড়ির পাশে বোমাবাজি ‘তৃণমূল’ আশ্রিত দুষ্কৃতীদের]

জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে মঙ্গলবারের হামলার ঘটনায় ২১ জনের বিরুদ্ধে বাসন্তী থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনা প্রসঙ্গে আহত আবদুল করিম বলেন, “আমাদের বারবার হুমকি দিচ্ছিল দুষ্কৃতীরা। আমরা তাতে নত না হওয়ায় আক্রমণ করে।” এই ঘটনায় আহত নির্যাতিতার কাকা বলেন, “ঘটনার চারদিন পরে অজ্ঞান অবস্থায় ওকে উদ্ধার করেছিলাম। কোনওমতে প্রাণে বেঁচে ছিল। সেই মামলা তোলার জন্য হুমকি দিচ্ছে দুষ্কৃতীরা। টাকা নিয়ে মিটিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে। কিন্তু আমরা তাতে রাজি না হওয়ায় এই হামলা।”

[আরও পড়ুন: পাণ্ডুয়ায় নাবালিকার শ্লীলতাহানিতে অভিযুক্ত প্রৌঢ় তৃণমূল নেত্রীর স্বামী, দাবি বিজেপির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement