১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বনগাঁয় বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব! মণ্ডল সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ পঞ্চায়েত সদস্যদের বিরুদ্ধে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 16, 2020 4:40 pm|    Updated: September 16, 2020 5:27 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: ফের প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীকোন্দল। এবার দলের মণ্ডল সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ উঠল পঞ্চায়েত সদস্যদের বিরুদ্ধে। বর্তমানে হাসপাতালে ভরতি প্রহৃত ওই বিজেপি নেতা। ঘটনাটি উত্তর ২৪ পরগনার গোপালনগরের (Gopalnagar)। এই ঘটনায় বেজায় অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির।

উত্তর ২৪ পরগনার গোপালনগরের আকাইপুরের পানপাড়ার বাসিন্দা বিজেপির (BJP) ওই  মণ্ডল সভাপতির নাম বিদেশ দাস। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় পানপাড়ায় ধনঞ্জয় বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে একটি বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই ছিলেন তিনি। বৈঠক চলাকালীন পঞ্চায়েত সদস্য বিপ্লব সরকারের বাবা মণ্ডল সভাপতি বিদেশবাবুর সঙ্গে বাকযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন। তবে সেই সময়ের মতো ঝামেলা মিটেও যায়।

[আরও পড়ুন: সরকারি পলিটেকনিক কলেজের প্লেসমেন্টেও কাটমানির দাবি! বুদ্ধির জোরে বাঁচল ২১ ছাত্র]

অভিযোগ, ওই ঘটনার জেরেই মিটিং সেরে বিদেশবাবু পানপাড়া চৌরাস্তার মোড়ে পৌঁছতেই তাঁর উপর চড়াও হয় পঞ্চায়েত সদস্যরা। লাঠি, রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় তাঁকে। কোনওক্রমে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় হাসপাতালে। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর। কিন্তু কী কারণে এই হামলা? সামান্য বাকবিতণ্ডার কারণেই এই ভয়ংকর পরিণতি নাকি পিছনে অন্য কোনও রহস্য তা এখনও অজানা। তবে নেপথ্যের কারণ যাই হোক, এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই অস্বস্তি বেড়েছে পদ্ম শিবিরের। এই ঘটনাকে হাতিয়ার করে বিজেপিকে বিঁধতে শুরু করেছে শাসকদল।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে ঋণের কিস্তি দিতে ব্যর্থ, টাকার জন্য চাপ সংস্থার, অবসাদে মর্মান্তিক পরিণতি যুবকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement