৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংগ্রাম সিংহরায়, শিলিগুড়ি: বাম যুব সংগঠনের উত্তরকন্যা অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার শিলিগুড়িতে। পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে মিছিল এগোতে চাইলে ডিওয়াইএফআই সদস্যদের পুলিশ বাধা দেয়। মিছিল থামাতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে, ছোড়া হয় জলকামান। পালটা পুলিশের উপরেও হামলা চলে। পরিস্থিতির জেরে কার্যত রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে তিনবাত্তি মোড়। ডিওয়াইএফআই-এর অভিযোগ, তাঁদের কর্মসূচি আটকাতে পুলিশ অযথা বাড়তি বলপ্রয়োগ করেছে। সরাসরি দমনমূলক পদক্ষেপ নিয়েছে, যা অত্যন্ত নিন্দনীয়। ঘটনা ঘিরে বামপন্থী মহলে ক্ষোভ বাড়ছে।

কর্মসংস্থানের দাবি, উত্তরবঙ্গে এসএসসি পরীক্ষার সেন্টার, বন্ধ চা বাগান খোলার উদ্যোগ গ্রহণ-সহ একাধিক দাবি নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ডিওয়াইএফআই। সেইমতো আজ তাঁদের উত্তরবঙ্গের সচিবালয় উত্তরকন্যা অভিযানের কথা ছিল। সেখানে গিয়ে স্মারকলিপি জমা দিতেন তাঁরা। দুপুরে নির্ধারিত সময়ে সংগঠনের সদস্যরা শিলিগুড়ির এমজি রোড থেকে মিছিল শুরু করেন। কিন্তু একটু এগোতেই পুলিশ মিছিল আটকে দিতে চায় বলে অভিযোগ। পুলিশের বাধা না মেনে মিছিলকারীরা এগিয়ে যান এবং পুলিশের লোহার ব্যারিকেডও ভেঙে ফেলেন। তাতে পুলিশের দমনপীড়নমূলক পদক্ষেপ আরও বেড়ে যায়। পুলিশ লাঠিচার্জ করে, জলকামান ব্যবহার করে।

[আরও পড়ুন: ক্যানসার আক্রান্ত বাবার শেষ ইচ্ছে, হাসপাতালেই বসল মেয়ের বিয়ের আসর]

এরপর পালটা পুলিশকে লক্ষ্য করে ডিওয়াইএফআই-এর মিছিল থেকেও হামলা হয় বলে অভিযোগ। পুলিশের দিকে ইটবৃষ্টি চলে। বাঁশ নিয়েও হামলা চালানো হয়। দু’পক্ষের সংঘর্ষে উত্তপ্ত হতে থাকে পরিস্থিতি। বেশ কিছুক্ষণ ধরে ধুন্ধুমার চলতে থাকে। ডিওয়াইএফআই পুলিশের ভূমিকার তীব্র নিন্দা করেছে। তাঁদের দাবি, পুলিশ সরাসরি দমনমূলক পদক্ষেপ নিয়েছে। আজকের ঘটনা নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন শিলিগুড়ির মেয়র তথা বাম বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্য।

[আরও পড়ুন: বসন্তোৎসবের স্থানবদল, দোলের দিন অনুষ্ঠান হবে পৌষমেলার মাঠে]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং