Advertisement
Advertisement

Breaking News

CM Mamata Banerjee

কেন্দ্রের ‘গাফিলতিতে’ই বেহাল রেল, উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে দাঁড়িয়ে আক্রমণ মুখ্যমন্ত্রীর

আহতদের সঙ্গে দেখা করলেন মমতা, বিশেষ বাসে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ। রাতে শিয়ালদহে খোলা হচ্ছে বিশেষ হেল্প ডেস্ক।

CM Mamata Banerjee attacks centre for accident in Kanchanjunga Express
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:June 17, 2024 6:51 pm
  • Updated:June 17, 2024 7:26 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনার সাক্ষী হল বাংলা। সোমবার সকালে উত্তরবঙ্গের ফাঁসিদেওয়ার কাছে নিজবাড়িতে শিয়ালদহগামী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে মালগাড়ির ধাক্কায় অন্তত ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত বেশ কয়েকজন। প্রাণহানির চেয়েও বেশি ছড়িয়েছে আতঙ্ক। রেল সফরের নিরাপত্তাহীনতার বোধ। এদিনের এই দুর্ঘটনার নেপথ্যে কেন্দ্রকেই দায়ী করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। সোমবার সন্ধেবেলা উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে আহতদের দেখে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তাঁর বক্তব্য, ”যাত্রী সুরক্ষার দিকে একেবারেই নজর দেয়নি। বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের মতো বিলাসবহুল ট্রেন চালু করতে গিয়ে পরিকাঠামো উন্নয়ন, সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ভাবা হয়নি। যার জন্য এই বেহাল দশা। আমি এসব বলতে খারাপ লাগছে। কিন্তু বলতেই হচ্ছে, রেলের চূড়ান্ত গাফিলতির পরিণাম এই দুর্ঘটনা।”

সকালে দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পর থেকেই উত্তরবঙ্গে যাওয়ার চেষ্টা  করছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু বিমানের সময় নিয়ে সমস্যা থাকায় তিনি পৌঁছন সন্ধের পর।  বাগডোগরা (Bagdogra) বিমানবন্দরে নেমেই সোজা চলে যান উত্তরবঙ্গ মেডিক্য়াল কলেজ হাসপাতালে। সঙ্গে ছিলেন মন্ত্রী অরূপ রায় ও অন্যান্য প্রশাসনিক আধিকারিক। এই হাসপাতালে ভর্তি ৪৩ জন। তাঁদের সকলের সঙ্গে কথা বলেন। চিকিৎসা নিয়ে সবরকম আশ্বাস দেন। এমন বিপর্যয়ে ছুটি বাতিল দিনরাত চিকিৎসার কাজে ব্যস্ত স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের প্রশংসা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: ডিউটি বদলই কাল! রেল দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের গার্ড]

এর পর হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে মমতা জানান, ”এখানে ৪৩ জন ভর্তি। আমি যা দেখলাম, তাতে একজনের অবস্থায় একটু সংকটজনক। বাকি সকলে স্থিতিশীল। আমাদের ডাক্তার, নার্স থেকে প্রশাসনের আধিকারিক সকাল থেকে সবাই খুব ভালো কাজ করেছেন। আমি তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞ।”  মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা,  ”অনেকে ট্রমায় আছেন। নিজেদের বাড়ির ঠিকানা, পরিবারের নাম ঠিকমতো বলতে পারছেন না। আমি প্রশাসনের সকলকে বলেছি, হাসপাতাল থেকে ওঁদের ছেড়ে দেওয়ার পর আলাদা বাসের ব্যবস্থা করতে। সেখানে তাঁদের বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হবে।” 

Advertisement

[আরও পড়ুন: মাথাপিছু ১০! ৪ কেন্দ্রের উপনির্বাচনে আসরে বিজেপির ৪০ তারকা প্রচারক]

মুখ্যমন্ত্রীর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই নির্দেশ মেনে রাত ১২টা থেকে শিয়ালদহ স্টেশনে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে একটি হেল্প ডেস্ক (Help Desk) করা হচ্ছে। তার দায়িত্বে থাকবেন রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম ও রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী। রাজ্য পরিবহণ দপ্তরের পক্ষ থেকে ছোট মাঝারি ও বড় সরকারি বাসের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে শিয়ালদহ (Sealdah) স্টেশনে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস শিয়ালদহ পৌঁছলে সমস্ত যাত্রীকে স্বাচ্ছন্দ্যে তাঁদের বাড়ি পৌঁছে দিতে হবে।

দেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ