২৪ চৈত্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ৭ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

বাড়ির বাইরের দেওয়ালে অদ্ভুত হাতের ছাপ! অজানা আতঙ্কে কাঁটা আসানসোলের ইসমাইল

Published by: Sayani Sen |    Posted: February 19, 2020 9:40 pm|    Updated: February 19, 2020 9:40 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়আসানসোল:  বাড়ির বাইরের দেওয়ালে অদ্ভুতুড়ে সব হাতের ছাপ। জানালার সানশেডের উপর পায়ের ছাপ। কোথাও হাতের আঙুলের ছাপ ফুটে উঠেছে দোতালা জানালার পাশে ধুলো মাখা দেওয়ালে। ঠিক যেন স্পাইডারম্যান। দোতলার ব্যালকনি, জানালা, দেওয়ালে এমনভাবে ফুটে উঠেছে এই সব অস্পষ্ট ছাপ ঠিক যেন স্পাইডারম্যান চড়ে বেড়িয়েছে পাড়াজুড়ে। পাঁচ থেকে ছটি বাড়িতে এই ঘটনা সামনে আসার পর ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য। গত তিনদিন ধরে এই ঘটনা ঘটছে আসানসোলের ইসমাইল এলাকায়। হীরাপুর থানার ইসমাইল ইউ-রোড এলাকায় এই ধরণের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ আসে তদন্তে। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা কোনও চোর রাতে জানালা দিয়ে উঁকিঝুঁকি মেরে গেছে। সুবিধা করতে না পারায় চুরির ঘটনা ঘটেনি। তবে এলাকাবাসীর দাবি, নিছক চুরি নয় অন্যরকম কোনও উদ্দেশ্য নিয়ে দুষ্কৃতী হানা দিয়েছে পাড়ায়। বিশেষ করে বাড়ির বেডরুমের জানালার পাশেই দেখা গেছে হাতের ও পায়ের ছাপ। ফলে আতঙ্ক দেখা দেয় মহিলাদের মধ্যে।

ধীরজ চক্রবর্তী বলেন, “আমার বাড়ির যে জায়গায় ওই ছাপ দেখেছি তাতে মনে হয় না স্বাভাবিক কোনও মানুষ ওইভাবে দেওয়ালে হাঁটাচলা করতে পারে। চোর হোক বা দুষ্কৃতী দেওয়ালে হাঁটাচলা করতে ওস্তাদ।”  দীপা রুইদাস নামে এক গৃহবধূ বলেন, “রাত দুটো থেকে তিনটে হবে। ঘুমের ঘোরে মনে হলো দোতালার জানালা দিয়ে কে যেন উঁকি মারলো। চোখ খুলতেই মনে হলো ছায়াটা সরে গেল। তারপর ঘুম চোখে ভুল দেখেছি বলে ফের ঘুমিয়ে পড়ি। সকালে উঠে জানালায় দেখি রাতে যা দেখেছিলাম তা সঠিক। জানালার বাইরে অংশে রয়েছে মানুষের আঙুলের ছাপ।” স্থানীয়রা বলেন, রাতের অন্ধকারে বাড়ির বেডরুমে যেখানে মহিলারা শুয়ে থাকেন সেই বাড়িগুলিতে কেউ উকিঝুঁকি মারছে। তবে একতলা নয় শুধুমাত্র দোতলার বেডরুমেই এই দৃশ্য দেখা দিচ্ছে। সুমন ঠাকুর নামে স্থানীয় বাসিন্দা বলেন,” আমরা পুলিশকে রাতে টহলদারির কথা বলেছি।”

[আরও পড়ুন: প্রেমিকার উপহারের টাকা জোগাড় করতে গাঁজা পাচার, শ্রীঘরে ঠাঁই ধৃত যুবকের]

ডিসি ওয়েস্ট অনমিত্র দাস বলেন, “লিখিত কোনও অভিযোগ আসেনি। পুলিশ খতিয়ে দেখছে ব্যাপারটা কী। প্রাথমিক ধারণা, চুরির উদ্দেশ্য নিয়ে কেউ ওইভাবে ঘোরাফেরা করছে স্থানীয়দের সজাগ থাকার কথা বলা হয়েছে। পুলিশের গাড়িও টহল দেবে এলাকায়।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement