Advertisement
Advertisement
Birbhum BJP

এক দেওয়ালে দুই নাম, প্রার্থী কে? দেবাশিস নাকি দেবতনু! চরম বিভ্রান্তি বীরভূম বিজেপিতে

দেবাশিসের পাশেই বিজেপির প্রতীকে দেওয়ালে লেখা হচ্ছে দেবতনুর নামে।

Confusion arises about candidate in Birbhum BJP

ছবি: শান্তনু দাস।

Published by: Amit Kumar Das
  • Posted:May 1, 2024 10:43 am
  • Updated:May 1, 2024 10:43 am

নন্দন দত্ত, বীরভূম: প্রচার শুরু হয়েছে জোর কদমে। দেওয়াল লিখনও সারা হয়েছে। ভিনরাজ্য থেকে প্রচারে আসছেন ভিভিআইপিরা। কিন্তু বীরভূম কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী কে সেটাই স্পষ্ট নয় দলের নেতা-কর্মীদের কাছে। দেবাশিস ধর নাকী দেবতনু ভট্টাচার্য (Devtanu Bhattacharya) কার হয়ে প্রচার করবেন কর্মীরা? চরম জটিলতায় ছন্নছাড়া অবস্থা বীরভূম বিজেপির (BJP)।

বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির তরফে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছিল আইপিএস দেবাশিস ধরকে (Debashis Dhar)। প্রশাসনিক পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে কোমর বেঁধে রাজনৈতিক প্রচারে নেমেও পড়েন দেবাশিস। বীরভূম (Birbhum) জুড়ে তাঁর নামে দেওয়াল লিখনের শুরু হয়। তবে রাজ্য সরকার তাঁর ইস্তফা গ্রহণ করেনি। এর পরই মনোনয়ন বাতিল হয় দেবাশিসের। এই অবস্থায় তড়িঘড়ি গত বৃহস্পতিবার মনোনয়ন জমা দেন দেবতনু ভট্টাচার্য। গত মঙ্গলবার থেকে তাঁর নামে নতুন করে শুরু হয়েছে দেওয়াল লিখন। তবে একটু অন্যভাবে। পূর্বে যেখানে দেবাশিসের নামে দেওয়াল লেখা হয়েছিল তার পাশেই দেবতনুর নামে নতুন করে দেওয়াল লেখা হচ্ছে। এমন একাধিক ছবিও সামনে এসেছে। ফলে নেতা কর্মীতো বটেই বিভ্রান্তি বাড়ছে ভোটারদের মধ্যেও। এদিকে আবার মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন দেবাশিস। সেই মামলার ফল কী হবে তা নিয়ে শুরু হয়েছে চর্চা। সব মিলিয়ে বিভ্রান্তি চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: রেভান্না সেক্স স্ক্যান্ডাল: সব জেনেও ‘কালপ্রিটে’র হয়ে প্রচার করেন মোদি, বিস্ফোরক ওয়েইসি]

দলীয় সূত্রে জানা যাচ্ছে, ২৩ এপ্রিলের আগে পর্যন্ত গোটা কেন্দ্রের দেওয়াল জুড়ে লেখা হয়েছিল দেবাশিস ধরের নাম। এখন আবার তার পাশেই লেখা হচ্ছে দেবতনুর নাম। এই পরিস্থিতিতে বীরভূম বিজেপির এক নেতা বলেন, “নতুন প্রার্থীর নাম লেখার আগে পুরানো প্রার্থীর নাম মুছে দেওয়া উচিত ছিল। সৌভাগ্যক্রমে এখানে দেবাশিস ধর নামে কোনও নির্দল প্রার্থী নেই। থাকলে বিভ্রান্তি আরও বাড়ত।” দলের এক কর্মীর দাবি, “গত ২০ দিন ধরে শয়ে শয়ে দেওয়ালে দেবাশিসবাবুর নাম লেখা হয়েছে সে সব মুছে ফের নতুন নাম লেখা রীতিমতো ঝক্কির। তাই নাম মোছার ঝামেলায় যাচ্ছে না দল। ওদিকে আবার আদালত পুরানো প্রার্থীর মামলায় তাঁর পক্ষে রায় দিলে ফের প্রার্থী বদলে যেতে পারে। তখন আবার সমস্যা হবে।”

Advertisement
কড়িধ্যায় দেওয়াল লিখন। ছবি: শান্তনু দাস।

[আরও পড়ুন: পিছিয়ে গেল কাশ্মীরের অনন্তনাগ-রাজৌরি কেন্দ্রের ভোটের দিন, ঘোষণা কমিশনের]

প্রার্থী নিয়ে সংশয় যখন এই পর্যায়ে গিয়েছে তখন মঙ্গলবার বীরভূমে যোগী আদিত্যনাথের সভা থেকে জট খোলার চেষ্টা করেন রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “আমাদের প্রার্থী হলেন দেবতনু ভট্টাচার্য। কিন্তু আগামী ৪ জুন ফল ঘোষণা পর্যন্ত বীরভূমের মাটিতে দাঁড়িয়ে লড়াই করবেন দেবাশিস ধর।” এমনকী যোগীও দেবতনুর হয়ে ভোট চেয়েছেন। সব মিলিয়ে চূড়ান্ত বিভ্রান্তির মাঝে বর্তমান প্রার্থী দেবতনু বলেন, ‘আমরা কোনও প্রার্থীর নাম নিয়ে নয়, পদ্ম প্রতীক নিয়ে লড়াই করি। ওটাই সব।’ পাশাপাশি দেবাশিস ধর বলেন, ‘মনোনয়ন বাতিল নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছি। আমার প্রার্থী পদ ফিরে পেতে চাই। কিন্তু দল যে নির্দেশ দেবে সেটাই হবে।’

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ