Advertisement
Advertisement
TMC

‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধের ব্যবস্থা করুন’, সভায় মহিলাদের কম উপস্থিতি দেখে নিদান তৃণমূল নেতার

মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছে বিজেপি।

Controversy started over a TMC leaders comment in Ghatal | Sangbad Pratidin
Published by: Tiyasha Sarkar
  • Posted:November 10, 2022 9:08 pm
  • Updated:November 10, 2022 9:08 pm

শ্রীকান্ত পাত্র, ঘাটাল: জনসভায় মহিলাদের উপস্থিতির হার অত্যন্ত কম। সেই ‘অপরাধে’ লক্ষ্মীর ভাণ্ডার বন্ধের নিদান দিলেন ঘাটাল (Ghatal) সাংগঠনিক জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যানের। তৃণমূল (TMC) নেতার এই মন্তব্যে তীব্র বিতর্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন বিরোধিরা।

বৃহস্পতিবার ঘাটাল লোকসভার সাংগঠিনক জেলার কিষাণ খেত মজুর সংগঠনের উদ্যোগে একটি জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে পূর্ণেন্দু বসু-সহ একাধিক দাপুটে নেতা ছিলেন। সেই জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়েই বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন ঘাটাল সংগঠনিক জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যান অমল পণ্ডা। এদিন মঞ্চ থেকে অমলবাবু দেখেন, জনসভায় মহিলাদের উপস্থিতি অত্যন্ত কম। এতেই কার্যত চটে যান তিনি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: অনুব্রতহীন বীরভূমেও অপ্রতিরোধ্য ঘাসফুল, বীরভূম সমবায় ব্যাংকের নির্বাচনে বিনা লড়াইয়ে জয়ী TMC]

এদিনের সভা থেকে অমল পণ্ডা বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা সুযোগ সুবিধা দিয়েছেন তা আমরা ভুলে গিয়েছি। আজকের অনুষ্ঠানে মহিলা ও পুরুষের সংখ্যা সমান সমান। কিন্তু মায়েদের জন্য লক্ষ্মীর ভাণ্ডার রয়েছে। বোনেদের জন্য নানা প্রকল্প। তারপরও মহিলাদের সংখ্যা এত কম!” এরপরই কার্যত নিদানের ভঙ্গিতে অমলবাবু বলেন, “আমি পূর্ণেন্দু দাকে বলব দিদির সঙ্গে কথা বলে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পটা বন্ধ করে দেওয়ার ব্যবস্থা করুন। মেয়েদের সংখ্যা এত কম হলে চলবে কেন? আমি দুধ খাব কিন্তু গরু আমি পালব না, এটা হয়?”

Advertisement

এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তাঁদের কথায়, “তৃণমূলের সংস্কৃতি হল মহিলাদের অপমান করা। ওরা যে ৫০০ টাকা দিয়ে ভোট কিনতে চেয়েছিল, তা আজ স্পষ্ট।”

[আরও পড়ুন: পাঁচিল দেওয়াকে কেন্দ্র করে ফের উত্তপ্ত শান্তিনিকেতন, বিশ্বভারতীর উপাচার্যকে ঘিরে বিক্ষোভ]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ