১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘২০২৪ সালের আগে CAA লাগু না হলে জীবন-মরণ আন্দোলনে নামব’, হুঁশিয়ারি বিজেপি বিধায়কের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 11, 2022 9:01 am|    Updated: July 11, 2022 9:01 am

Controversy started over Asim Sarkar's comment on CAA | Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার: ক’দিন বিরতির পর সিএএ (CAA) নিয়ে ফের সরব বিজেপি মতুয়া নেতৃত্ব। এবার এ বিষয়ে মোদি-অমিত শাহদের প্রতি সরাসরি আন্দোলনে নামার হুমকি দিলেন বিজেপি বিধায়ক অসীম সরকার (Ashim Sarkar)। যা নিয়ে নতুন করে মতুয়া বিক্ষোভের শঙ্কা রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের।

রবিবার দুপুরে নিজের ফেসবুক পেজে সিএএ নিয়ে একটি চাঞ্চল্যকর পোস্ট করেন হরিণঘাটার বিজেপি বিধায়ক অসীমবাবু। সেখানে চেনা সুরে এই আইন নিয়ে রাজ্যের শাসক দল ও মুখ্যমন্ত্রীর তীব্র বিরোধিতার সমালোচনায় মুখর হয়েছেন তিনি। বিজেপি বিধায়ক হিসাবে এই মমতা ও তৃণমূল বিরোধিতা নিয়ে সমস্য ছিল না। কিন্তু চাঞ্চল্য ছড়ায় পোস্টের শেষাংশে এসে।

[আরও পড়ুন: ২ দিন খেতে দেননি স্ত্রী! রাগে বধূকে কুপিয়ে খুনের পর বিষ খেলেন স্বামী, চাঞ্চল্য বীরভূমে]

সেখানে বিধায়ক লেখেন, “আমি আগেই বলে দিয়েছি, ২০২৪ সালের আগে যদি কেন্দ্রীয় সরকার সিএএ লাগু করে উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্ব সুরক্ষার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে প্রত্যেকের সিটিজেনশিপ কার্ডের ব্যবস্থা না করেন, তাহলে আমি আপনাদের সঙ্গে করে জীবন মরণ আন্দোলনের জন্য পথে নামব। সেই ভাবে আপনারা তৈরি থাকুন। হাজার হাজার শেয়ার করুন। সবাইকে জানিয়ে দিন।” নিজের পোস্টে অসীম সরকার টেনেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনু ঠাকুরের নাম।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি সুকান্ত মজুমদার বলেছিলেন, “বিজেপি যা বলে তা করে। রামমন্দির কেন্দ্রীয় বিজেপির লক্ষ্য ছিল। আইন ছাড়াই আমরা তা করে দেখিয়েছি। সিএএ (CAA) আমাদের লক্ষ্য। আমরা করে দেখাব, ২০২৪ সালের অনেক আগেই।” সুকান্তর দাবিতে স্বাভাবিকভাবেই নানা জল্পনা মাথাচাড়া দিয়েছে। প্রশ্ন উঠছে, সত্যিই লোকসভা ভোটের আগে সিএএ বাংলায় কার্যকর হবে কি না? সিএএ-কে হাতিয়ার করেই কি বাংলার ভোটারদের মন জয় করতে চাইছে বিজেপি, এই প্রশ্নও তুলেছিলেন অনেকে। এরই মাঝে বিজেপি বিধায়কের পোস্ট ঘিরে চর্চা সবমহলে। 

[আরও পড়ুন: চারদিন নিখোঁজ থাকার পর বাড়ির অদূরেই মিলল শিশুর ক্ষতবিক্ষত দেহ, শোরগোল অন্ডালে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে