BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ৪ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ধর্মকে হাতিয়ার করে ভোটে জেতার চেষ্টা’, ব্রাহ্মণ ভোজন করিয়ে বিতর্কে গোসাবার বিধায়ক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 20, 2020 9:44 am|    Updated: October 20, 2020 9:44 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার ব্রাহ্মণ ভোজন করিয়ে বিতর্কের মুখে গোসাবার (Gosaba) তৃণমূল বিধায়ক জয়ন্ত নস্কর। ‘পাপ ধুতে এই আয়োজন’, কটাক্ষ করেন স্থানীয় বিজেপি (BJP) নেতা। ভোটের আগে ধর্মকেই হাতিয়ার করতে চাইছে তৃণমূল-বিজেপি, তোপ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলির।

জানা গিয়েছে, সোমবার ব্রাহ্মণ ভোজনের ব্যবস্থা করেছিলেন জয়ন্তবাবু। প্রায় ১০০০ জন ব্রাহ্মণকে খাওয়ান তিনি। পাশাপাশি, তাঁদের হাতে উপহার স্বরূপ তুলে দেওয়া হয় ১০০০ টাকা ও পোশাক। যাতায়াতের খরচ বাবদ দেওয়া হয় আরও ৫০০ টাকা। স্বাভাবিকভাবেই এতে বেজায় খুশি হন নিমন্ত্রিত ব্রাহ্মণরা। তবে বিষয়টাকে ভালভাবে নেয়নি রাজনৈতিক মহল। ভোটের কথা মাথায় রেখেই ব্রাহ্মণ সেবার আয়োজন বলে কটাক্ষ করেছেন অনেকেই। ধর্মকে অস্ত্র করে ভোটবাক্স ভরতে চাইছেন বিধায়ক, এমন অভিযোগ করেছেন বিরোধীরা। আবার এক বিজেপি নেতার কথায়, “উনি বহু পাপ, খারাপ কাজ করেছেন। এসব করে তার প্রায়শ্চিত্ত করছেন।” তবে এই অনুষ্ঠানের সঙ্গে দলের কোনও যোগ নেই বলেই দাবি জয়ন্ত নস্করের।

[আরও পড়ুন: ‘দুর্গাপুজোর নামে বেলেল্লাপনা করছে রাজ্য সরকার’, বেনজির আক্রমণ সায়ন্তনের]

বিধায়কের কথায়, “এটা দলের নয়, আমার ব্যক্তিগত অনুষ্ঠান। ব্রাহ্মণদের ছাড়া আমাদের কোনও শুভকাজ সম্পন্ন করা অসম্ভব। তা সত্ত্বেও ওরাই বরাবর অর্থ সংকটে ভোগেন। সেই কারণেই তাঁদের পাশে দাঁড়াতে এই উদ্যোগ।” উল্লেখ্য, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে পুরোহিতদের কথা ভেবে ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তা নিয়েও বিস্তর কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল তাঁকে।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত বিশ্বভারতীর উপাচার্য, পড়ুয়াদের স্বার্থে আংশিক বন্ধ বিশ্ববিদ্যালয়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement