১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গুজবের জেরে শ্মশানে বন্ধ সৎকার! পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলাশাসকের হস্তক্ষেপের আরজি

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 20, 2020 4:58 pm|    Updated: April 20, 2020 4:58 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: করোনা সংক্রমণে মৃতদের দাহ করা হবে এলাকার শ্মশানে। এই গুজবে সেই যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে দুর্গাপুরের বীরভানপুরে, তা আর কাটছেই না। ফলে দেহ সৎকার নিয়ে প্রবল সমস্যা তৈরি হয়েছে। বাধ্য হয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার আবেদন জানিয়ে জেলাশাসকের দ্বারস্থ দুর্গাপুর নগর নিগমের ৪ নম্বর বোরোর চেয়ারম্যান। 

গত ১৭ এপ্রিল বীরভানপুর শ্মশানে করোনায় মৃত দুজনের দেহ দাহ করা হবে বলে ছড়িয়ে পড়ে গুজব। সেই রাত থেকেই শ্মশানের রাস্তা আটকে ক্ষোভ প্রকাশ করে গ্রামবাসীরা। সেই বিক্ষোভের আঁচ এখনও নেভেনি। ফলে অন্য রোগে মৃত্যু হলেও সেই দেহ সৎকার করতে দেওয়া হচ্ছে না বীরভানপুর মহাশ্মশানে। যার ফলে প্রবল সমস্যায় দুর্গাপুরবাসী। বাধ্য হয়ে  সোমবার জেলার নতুন জেলাশাসক দুর্গাপুরে যেতেই এই সমস্যা জানিয়ে একটি আবেদন পত্র তাঁর হাতে তুলে দেন দুর্গাপুর নগর নিগমের ৪ নম্বর বোরো কমিটির চেয়ারম্যান। জেলাশাসকের কাছে শ্মশানের কর্মীদের সুরক্ষার সরঞ্জাম ও নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থার দাবি জানান তিনি।

[আরও পড়ুন: জল নেওয়ার আগে ধুতে হবে হাত, সংক্রমণ রুখতে টিউবওয়েলের কাছে রাখা হল সাবান-পোস্টার]

এই বিষয়ে চেয়ারম্যান চন্দ্রশেখর বন্দোপাধ্যায় জানান, “স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপকভাবে সচেতনতার প্রসার জরুরি। এই বিষয়ে আমাদের এবং সরকারি আধিকারিকদের গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা নিতে হবে।’’ মঙ্গলবার থেকেই স্থানীয় কাউন্সিলর, এলাকার ক্লাব, সংগঠনগুলি বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে স্থানীয়দের সচেতন করবেন। এ বিষয়ে পশ্চিম বর্ধমানের জেলাশাসক পূর্নেন্দু মাঝি বলেন, “বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। মহকুমাশাসককে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।” প্রসঙ্গত, এদিন পরিযায়ী শ্রমিকদের আশ্রয়স্থল ও যুব আবাসের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের পরিকাঠানো খতিয়ে দেখেন জেলাশাসক।

durgapur-2

ছবি: উদয়ন গুহরায়

[আরও পড়ুন: প্রাপ্যের তুলনায় মিলছে কম চাল-ডাল! কারচুপির অভিযোগে উত্তাল বাঁকুড়ার ICDS কেন্দ্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement