BREAKING NEWS

২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্যে একদিনে করোনার বলি ২, সামান্য বাড়ল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 16, 2021 8:46 pm|    Updated: March 16, 2021 8:50 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা দেশ করোনার দ্বিতীয় ধাক্কার আতঙ্কে ত্রস্ত। মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, কেরল, উত্তরাখণ্ডের মতো রাজ্যগুলিতে নতুন করে ভয়াবহ হচ্ছে কোভিড পরিস্থিতি। এরাজ্যে পরিস্থিতি ততটা খারাপ না হলেও, গত কয়েক দিনে আক্রান্তের সংখ্যা আড়াইশোর আশপাশেই থাকছে। ব্যতিক্রম হল না মঙ্গলবারও। এদিন রাজ্যে মোট করোনার কবলে পড়লেন ২৫৫ জন। যা আগের দিনের থেকে নামমাত্র বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। গতকাল করোনার বলি হয়েছিলেন ৩ জন। ফলে রাজ্যের মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১০ হাজার ২৯৭ জন।

রবিবার স্বাস্থ্যদপ্তরের দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, এই মুহূর্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লক্ষ ৭৮ হাজার ৮৫৩ জন। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫ লক্ষ ৬৫ হাজার ৩৯৮ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৪২ জন। অর্থাৎ একদিনে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ১১ জন। এর ফলে আপাতত রাজ্যের মোট অ্যাকটিভ কেস দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ১৫৮ জন। এই মুহূর্তে রাজ্যের সুস্থতার হার ৯৭.৬৮ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: করোনাতঙ্কে আবির তৈরি বন্ধ থাকায় সংকটে শ্রমিকরা, ফুলবাড়িতে ফিকে ভোট উৎসবের রং]

মঙ্গলবার স্বাস্থ্যদপ্তরের দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, শুধু কলকাতায় একদিনে করোনার কবলে পড়েছেন ৯৭ জন। সুস্থ হয়েছেন ৭৭ জন। প্রত্যাশিতভাবেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। একদিনে সেখানে ৬২ জনের শরীরে মারণ ভাইরাসের হদিশ মিলেছে। একদিনে ওই জেলায় সুস্থ হয়েছেন ৭২ জন। অর্থাৎ উত্তর ২৪ পরগনায় এদিন সামান্য হলেও কমেছে অ্যাকটিভ কেস। স্বস্তির খবর হল, রাজ্যের ৯টি জেলাতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন মাত্র একজন করে।  কালিম্পংয়ে নতুন করে কেউ এই ভাইরাসের কবলে পড়েননি। দক্ষিণ দিনাজপুর এবং ঝাড়গ্রামেও নতুন আক্রান্তের সংখ্যা শূন্য। অধিকাংশ জেলাতেই আক্রান্তের সংখ্যা দুই অঙ্কে পৌছায়নি।  গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তর ২৪ পরগনায় একজন এবং হাওড়ায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement