BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সিপিএমের হাতে প্রহৃত প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 2, 2016 9:08 am|    Updated: June 2, 2016 9:09 am

An Images

নিজস্ব সংবাদদাতা: সিপিএম-তৃণমূল সংঘর্ষে বুধবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বসিরহাট উত্তর কেন্দ্রের পানিগোবরা গ্রাম৷ দু’দলের ২০ জন সদস্য আহত হয়েছেন৷ আক্রান্ত হয়েছেন বসিরহাট উত্তর কেন্দ্রের প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক এ টি এম আবদুল্লা৷ সংঘর্ষ চলাকালীন দশটি বাড়ি ভাঙচুর করা হয়৷ বেশ কয়েকটি বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ পুলিশের উপর আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে৷ ঘটনাস্থলে ছুটে যেতে হয় জেলা পুলিশ সুপারকে৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নামাতে হয় ব়্যাফ৷ ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কর্মীরা৷

ঘটনার সূত্রপাত হয় বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ৷ পানিগোবরা গ্রামে একটি সভার আয়োজন করেছিল স্থানীয় সিপিএম নেতৃত্ব৷ বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে জিতেছে সিপিএম৷ সভা সফল করার জন্য সিপিএমের কর্মীরাও ভিড় জমাতে থাকেন সভাস্থলে৷ ঘটনাচক্রে সেই সময়ই ওই এলাকা দিয়ে যাচ্ছিলেন তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক এ টি এম আবদুল্লা৷ নির্বাচন পরবর্তীতে সিপিএমের হাতে আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের দেখতে কয়েকজনকে নিয়ে মোটরবাইকে চেপে পানিগোবরা গ্রামে যাচ্ছিলেন এ টি এম৷ অভিযোগ, সিপিএমের ওই সভাস্থলের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় এ টি এম আবদুল্লাকে উদ্দেশ করে কটূক্তি ও কুরুচিকর কথা বলতে থাকেন সিপিএমের লোকজন৷ তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়কের সঙ্গে থাকা তৃণমূল কর্মীরা ঘটনার প্রতিবাদ করেন৷ তার পরেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে৷

তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ,  সিপিএমের লোকজন লোহার রড-বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করে৷ এ টি এম আবদুল্লাকে রাস্তায় ফেলে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ৷ ঘটনার গুরুতর জখম হন এ টি এম আবদুল্লা-সহ ১০ জন তৃণমূল কর্মী৷ তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক-সহ আহত তৃণমূল কর্মীদের ধান্যকুড়িয়া হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়৷ এ টি এম আবদুল্লা বলেন, “সিপিএম ও কংগ্রেস একত্রিতভাবে হামলা চালিয়েছে৷ নির্বাচনের ফল বেরনোর পর থেকেই তৃণমূলের কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন সিপিএমের হাতে৷ গোটা এলাকায় সন্ত্রাসের বাতাবরণ তৈরি করতে চাইছে সিপিএম৷” ঘটনার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়তেই পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে৷

পানিগোবরার পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন তৃণমূলের কর্মীরা৷ সিপিএমের সঙ্গে ফের নতুন করে গণ্ডগোল বাধে৷ কেন প্রাক্তন বিধায়কের উপর হামলা, এই অভিযোগ তুলে সরব হয় তৃণমূল৷ সিপিএম সমর্থকদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷ দু’দলের সংঘর্ষে পানিগোবরা গ্রামের বেশ কয়েকটি বাড়িতে ভাঙচুর করা হয়েছে৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী নিয়ে ছুটে যান উত্তর ২৪ পরগনার পুলিশ সুপার তন্ময় রায়চৌধুরি৷ কিন্তু পরিস্থিতি এতটাই রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল যে, পুলিশকে ব়্যাফ নামাতে হয়৷ তারপরেও পুলিশের উপর আক্রামণ চালায় বিক্ষোভকারীরা৷ উত্তেজিত জনতার হাতে আক্রান্ত হন বসিরহাট থানার আইসি তপন মিশ্র৷

যদিও সদ্য নির্বাচিত সিপিএম বিধায়ক রফিকুল ইসলাম বলেন, “ঘটনার মধ্যে পড়ে আহত না হয়েও হাসপাতালে শুয়ে অসুস্থতার নাটক করছেন এ টি এম আবদুল্লা৷” এদিকে তৃণমূলের অভিযোগ, নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর থেকে তৃণমূলের উপর লাগাতার আক্রমণ চলছে৷ অবিলম্বে সিপিএম আশ্রিত দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারের দাবি তুলে রাস্তা অবরোধও করেন তৃণমূল কর্মীরা৷ ঘটনায় বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সুপার তন্ময় রায়চৌধুরি জানিয়েছেন৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement