Advertisement
Advertisement
Cyclone Remal

কোন পথে ধেয়ে আসছে ‘রেমাল’? বঙ্গে কতটা তাণ্ডব দেখাবে? আপডেট দিল হাওয়া অফিস

এই মুহূর্তে মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে নিম্নচাপটি। কবে কোন জেলায় ঝড়বৃষ্টি হবে? বিস্তারিত জানালেন আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের ডিডিজিএম সোমনাথ দত্ত।

Cyclone Remal: Here is the route of the cyclone according to Alipore Weather Office
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 24, 2024 6:05 pm
  • Updated:May 24, 2024 8:39 pm

নিরুফা খাতুন: ষষ্ঠ দফা লোকসভা নির্বাচনের দিন আবহাওয়া বিশেষ ভালো থাকবে না, ঝড়বৃষ্টির আশঙ্কার খবর শুনিয়েছিল হাওয়া অফিস। ভোটের মাঝে ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ (Cyclone Remal)তাণ্ডব চালাবে বলে পূর্বাভাস ছিল। তবে রেমালের নতুন গতিপথ অনুযায়ী আবহাওয়া দপ্তর খানিকটা স্বস্তির কথাই শোনাল। ২৫ মে, শনিবার ষষ্ঠ দফার ভোটে খুব একটা বাধা হয়ে দাঁড়াবে না ঘূর্ণিঝড় বা মুষলধারায় বৃষ্টি। তার পরের তিনদিন অর্থাৎ ২৬, ২৭ এবং ২৮ তারিখ রেমালের দাপট থাকবে। শুক্রবার বিকেলে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের তরফে সাংবাদিক বৈঠক করে ডিডিজিএম সোমনাথ দত্ত রেমালের গতিপথ সম্পর্কে নতুন আপডেট শোনালেন।

আবহাওয়াবিদ সোমনাথ দত্তর বক্তব্য, আজ সকাল ১১টা নাগাদ মধ্য বঙ্গোপসাগরে (Bay of Bengal) অবস্থান করছে নিম্নচাপটি। এর পর তা উত্তর-পূর্ব দিকে এগোয়। এই মুহূর্তে তার অবস্থান বাংলাদেশের (Bangladesh) খেপুপাড়ার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব থেকে ৭০০ কিলোমিটার দূরে, এদিকে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলীয় এলাকা সাগর থেকে ৬৬০ কিলোমিটার ও ক্যানিং থেকে ৭০০ কিমি উত্তর-পূর্বে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের (Alipore Weather Office) পূর্বাভাস অনুযায়ী, শনিবার অর্থাৎ ২৫ মে সকালে তা ঘূর্ণিঝড়ের আকার নিতে চলেছে। উত্তরদিকে এগিয়ে আরও শক্তি সংগ্রহ করে শনিবার গভীর রাতে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। এবং ২৬ মে, রবিবার বাংলাদেশের খেপুপাড়া ও পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) সাগরের মাঝ বরাবর আছড়ে পড়বে ‘রেমাল’। এই সময়ে তার গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটারের বেশি। ২৬ তারিখ দিনভর বৃষ্টির (Rain)পূর্বাভাস রয়েছে বাংলার উপকূলবর্তী অঞ্চলগুলিতে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: প্রেগনেন্সি ‘বিতর্কে’ নিন্দুকদের কাঁচকলা দেখালেন দীপিকা! মোক্ষম জবাব হবু মায়ের]

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের ডিডিজিএম সোমনাথ দত্ত এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে বিস্তারিত জানিয়েছেন, কবে কোন কোন জেলায় কতটা ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ২৬ মে অর্থাৎ রবিবার মূলত উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় প্রচুর বৃষ্টি (Heavy Rainfall) হবে। সেইসঙ্গে ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, নদিয়া, কলকাতায়। এই জেলাগুলিতে জারি লাল সতর্কতা। ওইদিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুরে। এই দুই জেলায় হলুদ সতর্কতা জারি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: শনিবার ষষ্ঠ দফায় ৫৮ আসনের নির্বাচন, নজরে দিল্লি-হরিয়ানা, লড়াই উত্তরপ্রদেশ-বিহারেও]

পরেরদিন অর্থাৎ ২৭ তারিখ বাংলার কোনও জেলায় লাল সতর্কতা নেই। তবে দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, মালদহ, দক্ষিণ দিনাজপুরে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। আর ভারী বৃষ্টি হতে পারে দুই মেদিনীপুর, দুই বর্ধমান, বীরভূম, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, উত্তর দিনাজপুরে। বাকি জেলাগুলিতে হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। ২০২১ সালের ২৬ মে ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’ (Cyclone Yaas) আছড়ে পড়েছিল বাংলা-ওড়িশার উপকূলীয় অঞ্চলে। যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয় বঙ্গোপাসাগরের তীরবর্তী দুই রাজ্য। এবারও সেই ২৬ মে ধেয়ে আসছে ‘রেমাল’। তাই অতীত আতঙ্কে কাঁটা আমজনতা।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ