BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ত্রাসের নাম ‘সিসিটিভি’, আঁটঘাট বেঁধে ডাকাতি করতে এসেও ফিরে গেল লুটেরার দল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 27, 2020 11:28 am|    Updated: February 27, 2020 11:59 am

Dacoits flee to see CCTVs around the gold shop,where they planned to loot

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: রাতের অন্ধকারে বেশ আঁটঘাঁট বেঁধেই ডাকাতি করতে এসেছিল ৬ জনের দুষ্কৃতীদল। সোনার দোকান থেকে বহুমূল্য গয়না, মোটা অঙ্কের টাকা লুটের উদ্দেশ্য ছিল। সেই উদ্দেশ্য পূরণের জন্য গ্যাস কাটার দিয়ে শাটারের অংশ কাটতে শুরু করেছিল তারা। কেটেও ফেলেছিল বেশ খানিকটা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার চম্পাহাটি বাজারের লুটপাটের প্রস্তুতি কিছুটা এগোনোর পর হঠাৎই ডাকাতদলের নজরে আসে, দোকানের সামনে লাগানো সিসিটিভি। আর তাতেই ভয় পেয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। সিসিটিভির সূত্র ধরে তাদের খোঁজে নেমেছে বারুইপুর থানার পুলিশ।

চম্পাহাটি বাজারের সোনার দোকান বিজয় বাচস্পতি জুয়েলার্স। এলাকার নামি সোনার দোকান। সেখানেই ডাকাতির পরিকল্পনা ছকে ৫ থেকে ৬ জনের একটি দল। বুধবার গভীর রাতে সেইমতো অপারেশনও শুরু করে তারা। গ্যাস কাটার দিয়ে শাটার কাটতে শুরু করে। কিছুক্ষণ পর নিরাপত্তা রক্ষীর নজরে আসে বিষয়টি। তিনি বাধা দিতে যান। তাঁকে ধরেবেঁধে কোলাপসিবল গেটের সঙ্গে আটকে রাখা হয়। তারপর ফের শাটার কাটার কাজে মন দেয় দুষ্কৃতীদল। কিন্তু কাজে আচমকাই ছন্দপতন। একজনের নজরে আসে, দোকানের একেবারে সামনে, গেটের মাথাতেই লাগানো রয়েছে সিসিটিভি। আরও ভালভাবে তাকিয়ে তারা দেখেন, দোকানের আশেপাশে অন্তত ৪টি সিসিটিভি লাগানো রয়েছে। বেগতিক বুঝে অপারেশন বন্ধ করে দেয় তারা। ডাকাতির পরিকল্পনা অধরা রেখেই ফিরে যায়।

[আরও পড়ুন: ঘুষ দিতে না পারায় ব্যাপক মারধরের অভিযোগ, পুলিশি হেফাজতে বন্দির মৃত্যু]

সকালে দোকান খুলতে গিয়ে দেখা যায়, শাটারের নিচ থেকে বেশ খানিকটা অংশ কাটা। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, ডাকাতির চেষ্টা করা হয়েছিল গভীর রাতে। দোকানের মালিক খবর দেন বারুইপুর থানায়। অভিযোগ পেয়ে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। ইতিমধ্যেই সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। সেই সিসিটিভির ফুটেজ দেখেই দুষ্কৃতীদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। আর দোকান মালিকের বক্তব্য, সিসিটিভি ছিল বলে ডাকাতির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন।

[আরও পড়ুন: হাতকড়া পরেই আদালত থেকে চম্পট, পরে নেশার ঠেক থেকে গ্রেপ্তার অপরাধী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে