১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

খেলতে গিয়ে নিখোঁজ, ২৪ ঘণ্টা পর ডুবুরিদের কোলে উঠে এল শিশুর নিথর দেহ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 16, 2020 2:59 pm|    Updated: June 16, 2020 3:04 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: দুপুর থেকে সন্ধে। সোমবার দীর্ঘ সময়ে ধরে খোঁজ মিলছিল না বছর দুয়েকের শিশুর। পশ্চিম বর্ধমানের অন্ডালের পশ্চিম বাউড়ি পাড়ায় সেই শিশুকে পাওয়া গেল আজ সকালে। পাশের পুকুরে, মৃত অবস্থায়। প্রাথমিক অনুমান, খেলতে খেলতে জলে পড়ে গিয়েই মৃত্যু হয়েছে ওই শিশুর। জলে ভেজা ছেলের নিথর দেহ দেখে শোক সামলাতে পারছেন না পরিবারের সদস্যরা।

DGP-pond
পুকুরে উদ্ধারকাজে ডুবুরির দল

সোমবার অন্ডালের পশ্চিম বাউড়ি পাড়ার বছর দুয়েকের শিশু সমীর বাউড়ি খেলা করছিল নিজের বাড়ির পাশে। সেই দৃশ্য দেখেছিলেন মা, বাবা। নিশ্চিন্তও ছিলেন খানিক। এরপর হয়ত সাময়িকভাবে তাঁদের নজর সরে গিয়েছিল সমীরের উপর থেকে। আর সেই ফাঁক গলেই সংসারে নেমে এল মৃত্যুর ছায়া। দুপুরবেলা আচমকাই সকলের খেয়াল পড়ে, ২ বছরের সমীর বাড়িতে এবং বাড়ির আশেপাশে কোথাও নেই। খোঁজ খোঁজ রব ওঠে। তা সত্ত্বেও পাওয়া যায় না কোথাও। নজর পড়ে বাড়ির পাশের পুকুরে। ওদিকটায় কোনও ভাবে চলে যায়নি তো? সন্দেহ তীব্র হওয়ায় প্রতিবেশীরা মাছ ধরার জাল ফেলে খুঁজতে থাকেন।

[আরও পড়ুন: বিধানসভা ভোটের আগে লকেটের গড়ে ভাঙন, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে বহু কর্মী-সমর্থক]

সন্ধে গড়িয়ে যাওয়ায় খোঁজার কাজ বিশেষ করা এগোয় না। খবর দেওয়া হয় ডুবুরিদের। আসানসোল থেকে আসে ডুবুরির দল। রাতের অন্ধকারে যদিও জলে নেমে অনুসন্ধান করা যায়নি। আজ দিনের আলো ফুটতেই পুকুরে নেমে সমীরকে খোঁজার কাজ শুরু হয়। প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর উদ্ধার হয় তার মৃতদেহ। প্রাথমিক অনুমান, খেলতে খেলতে পুকুরপাড়ে চলে গিয়েছিল বছর দুয়েকের শিশু। পা পিছলে পড়ে যায়। তারপর তলিয়ে প্রাণ হারায়। তা সত্ত্বেও তার মৃতদেহ পুলিশ পাঠিয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। সামান্য অমনোযোগিতা যে এত বড় বিপদ ডেকে আনবে, ভাবতেও পারেননি বাউড়ি পরিবারের কেউ। শোকে পাথর মা। থমথমে বাড়ির পরিবেশ।

[আরও পড়ুন: সংসারে অশান্তির জেরে ১৩ মাসের সন্তানকে নিয়ে পালানোর চেষ্টা, আটক নদিয়ার যুবক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement