১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

COVID-19: করোনা কালে মেলা-ভোট বন্ধে সওয়াল অভিষেকের, ‘এমন রাজনীতিবিদই চাই’, বলছেন ডাক্তাররা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 8, 2022 10:15 pm|    Updated: January 8, 2022 10:19 pm

Doctors appriciate Abhishek Banerjee's comment on stop election and campaigning during COVID-19 situation | Sangbad Pratidin

অভিরূপ দাস: রাজনীতিবিদ হো তো অ্যায়সা। শনিবার তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) মন্তব্য শুনে এভাবেই একযোগে তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ চিকিৎসককুল। করোনা পরিস্থিতিতে ভোট-মেলা আপাতত বন্ধ রাখা উচিৎ বলে ব্যক্তিগত মতামত প্রকাশ করেছিলেন অভিষেক। আর তা শুনে চিকিৎসকদের বেশিরভাগের মন্তব্য, ‘এমন রাজনীতিবিদই তাই।’

শনিবার আলিপুরে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে বৈঠক করেন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল (TMC) সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠক শেষে তৃণমূল সাংসদ বলেন, ”কোভিড (COVID-19) পরিস্থিতিতে রাজ্যে আগামী ২ মাস সব কিছু বন্ধ রাখা উচিত। স্থগিত রাখা উচিৎ নির্বাচন। এটা আমার ব্যক্তিগত মত।” তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের এমন বক্তব্যকে কুর্ণিশ জানিয়েছেন রাজ্যের জনস্বাস্থ্য আধিকারিক ডা. অনির্বাণ দলুই। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যের পাশে দাঁড়িয়ে ডা. অনির্বাণ দলুই জানিয়েছেন, ”আমি সর্বান্তকরণে সমর্থন জানাই। একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের কাছ থেকে এমন বার্তা চিকিৎসকদের মনেও আশা জাগায়।”

[আরও পড়ুন: Coronavirus Update: করোনা আক্রান্ত সস্ত্রীক অরিজিৎ সিং, রয়েছেন আইসোলেশনে]

২৪ ঘন্টা আগেই রাজ্যজুড়ে মিছিল করেছে আরও এক রাজনৈতিক দল। সেখানে তৃণমূল সাংসদের এমন পরিণত বক্তব্যে অত্যন্ত খুশি চিকিৎসকরা। শনিবার বৈঠক শেষে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আগামী দু’মাস ডায়মন্ড হারবার (Diamond Harbour) সংসদীয় এলাকায় কোনও রাজনৈতিক সমাবেশ হবে না। করা যাবে না বড় আকারের কোনও ধর্মীয় সমাবেশও।  মাত্র ১১ দিনের ব্যবধানে, পশ্চিমবঙ্গে সাড়ে চারশো থেকে দৈনিক সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজারে। শনিবারও নতুন করে ১৮ হাজার মানুষের মধ্যে ছড়িয়েছে করোনা।

TMC MP Abhishek Banerjee says all votes should postpone for next 2 months as COVID-19 cases surges.
শনিবারের সভায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এসএসকেএম (SSKM) হাসপাতালের সুপার ডা. পীযূষ রায় জানিয়েছেন, একাধিক হাসপাতালে অগুনতি চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত। এখন সমস্ত উৎসব বন্ধ রাখাই শ্রেয়। কারণ সংক্রমণ আরও বাড়তে থাকলে আমজনতা চিকিৎসা পাবেন না। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্য শুনে মনে হয়েছে উনিও এই বিষয়ে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। যে কারণে উনি রাজনৈতিক এবং ধর্মীয় সমাবেশ বন্ধ রাখতে বলেছেন।

[আরও পড়ুন: রক্ত নিয়ে কালোবাজারির অভিযোগ, স্বাস্থ্যকর্মীকে জুতোর মালা পরিয়ে বিক্ষোভ হাসপাতালে]

উল্লেখ্য রাজ্যে সংক্রমণের হার ২৫ শতাংশ ছুঁইছুঁই। অর্থাৎ, যাঁরা কোভিড টেস্ট করছেন, তাঁদের প্রতি ৪ জনে ১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসছে। কলকাতা-সহ শহরতলিতেও করোনা সংক্রমনের গ্রাফ ক্রমশ উপরের দিকে উঠছে। একই ছবি দক্ষিণ ২৪ পরগণাতেও। সেখানেও ব্যাপক ভাবে বাড়ছে সংক্রমণ। এমন পরিস্থিতিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্যালুট জানিয়েছেন চিকিৎসককুল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে