২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জেলা পরিষদে মিলবে মুখ্যমন্ত্রীর রচনা সম্ভার, ওয়েটিং রুমে ‘মমতা লাইব্রেরি’

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: October 1, 2018 9:30 am|    Updated: October 1, 2018 9:30 am

East Burdhwan Zilla Parishad make Mamata Library in waiting room

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: পূর্বতন বোর্ড সূচনা করেছিল। আর নতুন বোর্ড এসে প্রথমেই পূর্ণতা দিল ‘মমতা লাইব্রেরির’। পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের ওয়েটিং রুমই এখন মমতা লাইব্রেরি। জেলা পরিষদে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় এসেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা বিপুল বইয়ের সম্ভার গড়ে তোলা হয়েছে সেখানে। প্রায় দেড় লক্ষ টাকা মূল্যের বই কেনা হয়েছে। দু’টি নতুন আলমারিতে সাজিয়ে রাখা হয়েছে সারি সারি বই। মমতা লাইব্রেরির আনুষ্ঠানিক সূচনাও করেছেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া ও সহকারি সভাধিপতি দেবু টুডু। জেলা পরিষদে বিভিন্ন কাজে আসা মানুষজনকে ওই ওয়েটিং রুমে অনেকটাই সময় কাটাতে হয়। সেই সময়ে তাঁরা যাতে বই পড়ার সুযোগ পান, তার জন্যই এই লাইব্রেরি তৈরি করা হয়েছে।

[স্কুলে নার্সারি পড়ুয়াকে ‘যৌন নির্যাতন’, প্রতিবাদে বারাকপুরে রেল অবরোধ]

পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের বিগত বোর্ডের শেষ দিকেই ওয়েটিং রুমে মমতা লাইব্রেরি চালু হয়েছিল। তবে তখন বইয়ের সংখ্যা কম ছিল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা কিছু বই ও মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে লেখা অন্যান্য কয়েকজন লেখকের বই ছিল লাইব্রেরিতে। নতুন বোর্ডের সভাধিপতি ও সহকারি সভাধিপতি শপথ গ্রহণের পরদিনই মুখ্যমন্ত্রীর লেখা প্রায় সব বই লাইব্রেরিতে এনে রাখা হয়েছে । দেবু টুডু বিগত বোর্ডে সভাধিপতি ছিলেন। আর সহকারি সভাধিপতি ছিলেন শম্পা ধাড়া। বর্তমান বোর্ডে শম্পাদেবী সভাধিপতি ও আর দেবুবাবু সহকারী সভাধিপতি নির্বাচিত হয়েছেন। শম্পাদেবী বলেন, “আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিক। রাজ্যের উন্নয়নের কাণ্ডারি তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর বই আমাদের সকলকেই অনুপ্রাণিত করে ভাল কাজ করার। সেই কথা মাথায় রেখেই সকলের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর বই পড়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে জেলা পরিষদে।” সহকারি সভাধিপতি দেবু টুডু বলেন, “আগের বোর্ডে আমরা থাকাকালীন কাজ শুরু করেছিলাম। এবার সেটা পূর্ণতা পেল। নতুন করে প্রায় দেড় লক্ষ টাকার বই এনেছি আমরা। জেলা পরিষদে আগত সকলেই এখানে বসে মুখ্যমন্ত্রীর লেখা সব বই পড়ার সুযোগ পাবেন।” তিনি আরও জানিয়েছেন, জেলা পরিষদে নতুন করে ডিসপ্লে বোর্ড বসানো হচ্ছে। সেখানে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের কাজ এবং পূর্ব বর্ধমান জেলায় জেলা পরিষদের তরফে যে সব কাজ অতীতে হয়েছে, আগামী দিনে হবে বা চালু রয়েছে, সেই সব প্রকল্পের কথা তুলে ধরা হবে ভিডিও-র মাধ্যমে। জেলা পরিষদে এসেও কাজের ফাঁকে উন্নয়ন প্রকল্পের খুঁটিনাটি জানা যাবে সেই সব অডিও-ভিডিও থেকে। পাশাপাশি, মুখ্যমন্ত্রীর গান-কবিতাও দেখানোর পরিকল্পান নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ছবি: মুকলেসুর রহমান

[ হাত দেখতে গিয়ে গৃহবধূকে আঁচড়, পুলিশের জালে বাঁদর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে