BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

তৃতীয় দফার আগে ফের পুলিশে রদবদল, থানা থেকে ৭ অফিসারকে বদলি কমিশনের

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 22, 2019 11:53 am|    Updated: April 23, 2019 5:50 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তৃতীয় দফার ভোটের আগে এবার রাজ্যের থানাগুলিতে বড়সড় রদবদল ঘটাল নির্বাচন কমিশন৷ সরানো হল তিন থানার আইসি-সহ একাধিক শীর্ষ পুলিশ অফিসারকে৷ কমিশন সূত্রে খবর, সরানো হয়েছে রঘুনাথগঞ্জের আইসি সৌগত রায়, ফারাক্কার আইসি উদয়শংকর ঘোষ ও বীজপুরের আইসি কৃষ্ণেন্দু ঘোষকে৷ বদলির তালিকায় নাম রয়েছে সামসেরগঞ্জের এএসআই, বারাবনির ওসি অজয় মণ্ডল ও অণ্ডাল থানার ওসি রাজশেখর এবং বিষ্ণুপুরের এসডিপিও-র৷

[আরও পড়ুন: ‘বাংলায় পদ্ম ফুটছেই’, কলকাতায় এসে দাবি আত্মবিশ্বাসী অমিত শাহর ]

মঙ্গলবার তৃতীয় দফার নির্বাচনে রাজ্যের পাঁচ লোকসভা কেন্দ্রে হতে চলেছে ভোটগ্রহণ৷ ভোট হবে বালুরঘাট, মালদহ উত্তর, মালদহ দক্ষিণ, জঙ্গিপুর ও মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রে৷ আর নির্বাচন শুরুর একদিন আগেই থানাস্তরের সাত পুলিশ আধিকারিককে সরানোয় স্বভাবতই প্রশ্ন উঠেছে প্রশাসনিক মহলে৷ সূত্রের খবর, এই সাত পুলিশ আধিকারিকের কাজের উপর দীর্ঘদিন ধরেই নজর ছিল নির্বাচন কমিশনের৷ সূত্রের খবর, এঁদের কাজে অসঙ্গতি ধরা পড়ায় নির্বাচনের আগের দিনই বদলি করা হল৷ এর আগে মালদহের পুলিশ সুপার পদ থেকে অপসারিত করা হয়েছিল অর্ণব ঘোষকে। সেই জায়গায় নয়া এসপি পদে নিয়োগ করা হয় বারুইপুরের এসপি অজয় প্রসাদকে। কেবল রদবদল করাই নয়, তৃতীয় দফার নির্বাচন প্রক্রিয়াকে সুষ্ঠুভাবে চালনা করার জন্য সোমবার পাঁচ লোকসভা কেন্দ্রের নিরাপত্তা পরিস্থিতিও খতিয়ে দেখছেন কমিশনের আধিকারিকরা৷ আগেই কমিশন ঘোষণা করেছে যে, এই ৫ কেন্দ্রের ৯২ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে৷ সেইমতো ইতিমধ্যে নির্দিষ্ট বুথে পৌঁছে গিয়েছে বাহিনী৷ চলছে এরিয়া ডমিনেশনের কাজও৷

[আরও পড়ুন: এক দশক ধরে নিখোঁজ, হ্যাম রেডিওর সৌজন্যে ঘরে ফিরলেন ভিনরাজ্যের প্রৌঢ়া ]

উল্লেখ্য, এই অর্ণব ঘোষ সারদা তদন্তের শুরুতে অন্যতম মূখ্য ভূমিকা নিয়েছিলেন। বিধাননগর কমিশনারেটের এই দক্ষ গোয়েন্দা প্রধানের নেতৃত্বেই এগিয়েছিল তদন্তের গতিপ্রকৃতি। তারপর তাঁকে নদিয়ার এসপি পদে বদলি করা হয়। সিপিএম-বিজেপি সহ একাধিক বিরোধী দল অর্ণব ঘোষের বিরুদ্ধে সারদা তদন্তে সরকারের সঙ্গে আঁতাঁতের অভিযোগ তুলেছিল। এবার নির্বাচনেও শাসকদলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে সরব ছিলেন বিরোধীরা। কমিশনের সিদ্ধান্ত যে তাদের অভিযোগকেই সিলমোহর দিল তা বলা বাহুল্য।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement