BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 22, 2019 10:48 am|    Updated: April 22, 2019 10:48 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের ক্ষমতায় ফেরা নিয়ে চূড়ান্ত আত্মবিশ্বাসী বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব৷ মাত্র দু’দফা ভোটের পরই জনরায় তাদের দিকে যাচ্ছে বলে ইঙ্গিত পেয়েছেন নেতারা৷ সোমবার, রাজ্য সফরে এসে কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দলের সর্বভারতীয় সভাপতি সাফ জানালেন, দিল্লিতে মোদির ফেরা নিশ্চিত৷ বাংলায় পদ্মের বিকাশ কেউ আটকাতে পারবে না৷

[ আরও পড়ুন : এক দশক ধরে নিখোঁজ, হ্যাম রেডিওর সৌজন্যে ঘরে ফিরলেন ভিনরাজ্যের প্রৌঢ়া]

১১ এবং ১৮ এপ্রিল, লোকসভা নির্বাচনের সবে দু’ দফা শেষ হয়েছে৷ এখনও বাকি ৫ দফা ভোটগ্রহণ পর্ব৷ প্রাথমিকভাবে এনডিএ বনাম বিরোধী জোট – দ্বিমুখী লড়াই বিজেপির কাছে কিছুটা কঠিন হলেও, দু’দফা ভোটের পরই তাঁদের আত্মবিশ্বাসের পারদ চড়তে শুরু করেছে৷ এদিন নিউটাউনের পাঁচতারা হোটেলে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অমিত শাহ বললেন, ‘মানুষ এবার ভোট দিয়েছেন বাংলায় বদল আনার জন্য৷ বাংলায় এবার পদ্ম ফুটবেই৷ দু’দফা ভোটের পরই আমরা বুঝতে পারছি, মোদির পক্ষেই জনরায়৷ গত ৫ বছরে মোদি সরকার দেশের সুরক্ষা, অর্থনৈতিক ক্ষেত্র, দারিদ্র দূরীকরণে এত কাজ করেছে, যার উপর ভরসা রেখে মানুষ আগামী ৫ বছরের জন্য ফের মোদিকেই নির্বাচিত করতে চান৷ জনতা ঠিক করে নিয়েছে, তৃণমূলকে সরিয়ে বিজেপিকে আনবে৷’

এই প্রসঙ্গে মোদি জমানার কাজের সংক্ষিপ্ত খতিয়ানও পেশ করেন অমিত শাহ, যা সাধারণত প্রচারসভায় বলে থাকেন৷ রাজ্যে বিজেপি বিরোধী মূল শক্তি তৃণমূলকে বিঁধলেন স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে৷ মুখ্যমন্ত্রীর জনসভাগুলিকে নিশানা করে তাঁর কটাক্ষ, ‘বাংলায় সংবাদমাধ্যমগুলিও পক্ষপাতিত্ব করছে৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাগুলির মঞ্চ দেখানো হয়, ভিড় দেখানো হয় না৷ কারণ, ভিড় দেখাতে গেলে তার আসল ছবি স্পষ্ট হয়ে যাবে৷ ভিড় হচ্ছে না বলেই মমতাকে হেঁটে প্রচার করতে হচ্ছে৷ নিজে এরাজ্যে গণতন্ত্র হত্যা করেছেন৷ তারপর এখন ওনার মুখে শুনছি গণতন্ত্রের কথা৷যাক, ভাল লাগছে শুনে৷’ পুলিশ রাজনৈতিক নেতাদের মতো আচরণ করছে বলেও অভিযোগ করেছেন অমিত শাহ৷

[আরও পড়ুন: ভাগ্নেকে অপহরণ করে ৩০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি, জালে অভিযুক্ত মামা]

এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে ফের এনআরসি এবং নাগরিকত্ব বিল কার্যকর করার কথা বলেন অমিত শাহ৷ ফের স্পষ্ট করে দেন, বাংলাদেশ-সহ প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলি থেকে এদেশে আশ্রয় নেওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ শরণার্থীদের নাগরিকত্ব প্রদান করবে পরবর্তী সরকার৷ ইস্তেহারে উল্লেখিত ৩৭০ এবং ৩৫-এ ধারা সংশোধনের বিষয়টি নিয়ে ফের অমিত শাহ বলেন, ভবিষ্যৎ কর্মসূচি ঠিক করেই ইস্তেহার বানিয়েছে বিজেপি৷ কিন্তু বিরোধীদের কারও ইস্তেহারে কোনও দিশা নেই৷ কাজের নয়, ইস্তেহার তৈরি হয়েছে কুর্সিতে বসার লড়াইয়ে টিকে থাকার জন্য৷ এদিন পুরুলিয়ায় নিহত তরুণ বিজেপি কর্মী শিশুপাল সহিসের মৃত্যুর দায় রাজ্যের শাসকদলের উপর চাপিয়েছেন বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি৷   

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement