১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৪ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাসে যাত্রী তোলা নিয়ে বচসার জের, বাঁকুড়ায় পিটিয়ে খুন বৃদ্ধকে, রাস্তায় দেহ ফেলে চলল বিক্ষোভ

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 5, 2022 12:24 pm|    Updated: June 5, 2022 12:24 pm

Elderly man killed by miscreants in Bankura | Sangbad Pratidin

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: বাসে যাত্রী তোলা নিয়ে বচসা। আর সেই বচসার জেরেই এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল বাঁকুড়ার (Bankura) মেজিয়া এলাকায়। রবিবার সকালের এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায়। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার দাবিতে মৃতদের রাস্তায় ফেলে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয়া বাসিন্দারা। পরে পুলিশের আশ্বাসে তিন ঘণ্টা পর অবরোধ ওঠে। বিবাদের জেরে নাকি এই খুনের পিছনে অন্য কোনও কারণ আছে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাঁকুড়ার লালবাজার এলাকার বাসিন্দা বছর ষাটেকের সরফুল খাঁ এদিন সকালে এক আত্মীয়কে বাসে তুলতে যান। ওই আত্মীয়র বাসে ওঠা নিয়ে বাস কন্ডাক্টরের সঙ্গে সরফুলের বচসা বাঁধে। এই সময় বাসের কন্ডাক্টরের পক্ষ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দা হাবিবুল শেখ এগিয়ে এলে তার সঙ্গেও বচসায় জড়িয়ে পড়েন সরফুল।

Bankura

[আরও পড়ুন: বন্যাবিধ্বস্ত অসমের রাস্তায় পিছলে গেল বাইকের চাকা, কাজ করতে গিয়ে মৃত অশোকনগরের জওয়ান]

মৃতের পরিবার এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, বচসার পরই হাবিবুল শেখ, শামিম শেখ ও সেবারতি শেখ-সহ এলাকার কয়েকজন সরফুলের উপর চড়াও হয়ে বেধড়ক মারধর করে। মারের চোটে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় মেজিয়া থানার পুলিশ। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়। পাশাপাশি মেজিয়া থানার পুলিশ অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। 

এদিকে দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবিতে প্রায় ৩ ঘণ্টা পথ অবরোধ করেন স্থানীয়রা। মৃতদেহ রাস্তায় ফেলে চলে বিক্ষোভ। পরে পুলিশের আশ্বাস অবরোধ তুলে নেন তাঁরা। তবে কী কারণে খুন, স্রেফ সাময়িক বিবাদ নাকি এই ঘটনার পিছনে ব্যক্তিগত পুরনো শত্রুতা রয়েছে, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: গণধর্ষণ কাণ্ডে উত্তাল হায়দরাবাদ, নির্যাতিতার ছবি প্রকাশ্যে এনে বিপাকে বিজেপি বিধায়ক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে