Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালের খবরের জের, আধার ছাড়াই পেনশন পেতে চলেছেন আঙুলহীন

খবর প্রকাশিত হওয়ার পরই উদ্যোগী হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷

Fingerless worker to get the pension without aadhaar
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:June 25, 2018 7:05 pm
  • Updated:June 25, 2018 7:05 pm

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: কুষ্ঠ রোগ হওয়ার জন্য বিলুপ্ত হয়েছিল আঙুল। তাই হয়নি আধার কার্ড। আর তার ফলে অবসরপ্রাপ্ত ইসিএল কর্মীর পেনশন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। গত ২৩ জুন এই খবর প্রকাশিত হয়েছিল সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালে। সে খবর পড়েই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর নিতে শুরু করেন৷ আর শেষ পর্যন্ত সমস্যার সমাধানের পথ সুগম হয়।

১৯৯৮ সালে অন্ডালের খাঁদরার নাগকাজোরা কোলিয়ারির কর্মী হরি আপটা অবসর নেন৷ অবসরের পর থেকে নিয়মিতভাবেই ব্যাংক থেকে পেনশন পাচ্ছিলেন৷ মেয়ের বাড়িতেই থাকেন তিনি৷ আচমকাই ব্যাংক জানিয়ে দেয়, আর তাঁকে পেনশন দেওয়া যাবে না৷ ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার লিঙ্ক না থাকায় বন্ধ হয়ে যায় পেনশন৷ কুষ্ঠ রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণে হাতের আঙুলগুলি ক্ষয়ে গিয়েছে বহুদিন আগেই৷ ফলে, কোনওভাবেই আধার কার্ড তৈরি করা আর সম্ভব হয়নি৷ আধার কার্ড না থাকায় আটকে পেনশন৷ ব্যাংক জানিয়েছে, আধার কার্ড ছাড়া কোনওভাবেই তারা আর পেনশনের টাকা দিতে পারবে না৷ পেনশনের টাকা না পেয়ে সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েতে জানিয়েও এই বিষয়ে কোন সাফল্য মেলেনি৷ মেলেনি সুরাহা৷

Advertisement

আঙুল নেই, তাই আধার তৈরি না হওয়ায় বন্ধ অবসরপ্রাপ্ত ইসিএল কর্মীর পেনশন ]

Advertisement

এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় আশ্বাস দেন যে হরি আপটার পেনশনের বিষয়টি নিয়ে তিনি ইসিএল ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের সঙ্গে কথা বলবেন৷ প্রতিশ্রুতি মোতাবেক রবিবার আসানসোলে পা দিয়েই তৎপরতা শুরু করে দেন তিনি৷ হরি আপটার অন্ডালের খাঁদরার ব্যাঙ্কের ঠিকানা ও যোগাযোগ নম্বর জোগাড় করেই ওই ব্যাঙ্কের মূল কার্যালয়ের সঙ্গে কথা বলেন তিনি৷ ইসিএল-এর সঙ্গে কথা বলেও তাদেরও তৎপর হওয়ার নির্দেশ দেন৷

আঙুল নেই, তাই আধার অধরা! খনি শ্রমিকের বন্ধ পেনশন ফেরাতে উদ্যোগ বাবুলের ]

সোমবার ইসিএল ও ওই ব্যাংকের মূল কার্যালয়ের আধিকারিকরা ব্যাংকের খাঁদরা শাখার সঙ্গে কথাও বলেন তিনি৷ আধার কার্ড প্রস্তুতকারক কেন্দ্রীয় সংস্থা ইউনিক আইডেণ্টিফিকেশন অথিরিটি অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গেও কথা বলেন৷ এই কার্ড তৈরিতে এই ধরনের ব্যক্তিদের কী সমস্যা রয়েছে, তা নিয়েও বিস্তারিত পর্যালোচনা হবে বলেও জানান তিনি৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় জানান, “সোমবার আমি সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কের শাখার ম্যানেজারের সঙ্গেও কথা বলেছি৷ তিনি আগামী মাস থেকে বকেয়া সহ পেনশন চালু করে দেবেন বলে জানিয়েছেন৷”

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ