১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

খড়দহ ও সোদপুরের মাঝে রেললাইনে ফাটল, ব্যাহত ট্রেন চলাচল

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 8, 2019 11:28 am|    Updated: November 8, 2019 11:58 am

Fissures on train tracks between Khardaha and Sodepur

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: খড়দহ ও সোদপুরের মাঝে রেললাইনে ফাটলের জেরে ব্যাহত হল ট্রেন চলাচল। শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে শিয়ালদহ-নৈহাটি শাখার খড়দহ ও সোদপুরের মাঝে অবস্থিত আনন্দপুর এলাকায়। স্থানীয় বাসিন্দার তৎপরতায় বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। পরে রেলের কর্মীরা এসে দেড়ঘণ্টার চেষ্টায় ফাটল ঠিক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ফের স্বাভাবিক হয় ওই শাখার ট্রেন চলাচল।

[আরও পড়ুন: শক্তি বাড়িয়ে ক্রমশই বাংলার দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকাল ৯ টা ১৫ মিনিট নাগাদ খড়দহ ও সোদপুরের মাঝে আনন্দপুর এলাকার দুনম্বর লাইনে ফাটল দেখা যায়। বিষয়টি দেখতে পেয়ে কাছে থাকা রেলের কেবিন ঘরে খবর দেন তাঁরা। কিন্তু, তারপরেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। কিছুক্ষণ বাদে ওই লাইনে দিয়ে বারাকপুর লোকালকে আসতে দেখেন স্থানীয়রা। সঙ্গে সঙ্গে ট্রেনের চালককে সতর্ক করার জন্য চেঁচামেচি করতে থাকেন তাঁরা। কিন্তু, তারপরও তিনি গতি কমাচ্ছেন না দেখে স্থানীয় পুরুষ ও মহিলারা হাতে কাপড় ও গামছা নিয়ে রেললাইনের উপর দিয়ে দৌড়তে থাকেন। তাঁদের এই অবস্থায় দৌড়তে দেখে ট্রেন থামিয়ে দেন চালক। তখন তাঁর কাছে গিয়ে রেললাইনে ফাটল ধরার কথা জানান স্থানীয়রা।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশিকে ভুয়ো আধার কার্ড তৈরিতে সাহায্য! গ্রেপ্তার দিলীপ ঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতা]

খবর যায় রেলের আধিকারিকদের কাছেও। এরপর ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে ফাটল সারানোর নির্দেশ দেন তাঁরা। এবং এই কাজের জন্য সাময়িক ভাবে ওই লাইনের ট্রেন চলাচল স্থগিত রাখা হয়। সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ ফাটল সারানোর কাজ শেষ হয়। তারপরই ফের শুরু হয় ট্রেন চলাচল। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলেই খবর।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, পরিস্থিতি যা ছিল তাতে বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটতেই পারত। কিন্তু, স্থানীয় বাসিন্দারা ঠিক সময়ে বিষয়টি দেখতে পাওয়ায় প্রচুর মানুষের প্রাণ বাঁচল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে