২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পূ্র্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগরের পর এবার হাওড়ার শ্যামপুরের খালে সাঁতরে বেড়াতে দেখা গেল ডলফিনকে। দেখা মেলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বনদপ্তর ও স্থানীয়দের তৎপরতায় ডলফিনটিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

জানা গিয়েছে, শনিবার সকালে হঠাৎই শ্যামপুর এলাকায় একটি খালে ডলফিনটিকে দেখতে পান স্থানীয়রা। জলজ প্রাণীর ঘোরাফেরা বেশ উপভোগ করেন উৎসুক আমজনতা। কেউ কেউ স্মার্টফোনবন্দি করে রাখেন ওই ডলফিনটিকে। আবার কেউ ডলফিনের খেলাধূলা ভিডিও করে রাখতেও ভোলেননি। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় স্থানীয় পুলিশ ও বনদপ্তরের আধিকারিকরা। ডলফিনটির সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে শুরু হয় উদ্ধারকাজ। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই খাল থেকে উদ্ধার করা হয় ডলফিনটিকে। ইতিমধ্যেই সেটিকে রূপনারায়ণে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, রূপনারায়ণ থেকেই কোনওভাবে খালে এসেছিল ডলফিনটি।

[আরও পড়ুন: হাসপাতালে ভরতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, অবস্থা স্থিতিশীল জানালেন চিকিৎসকরা]

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার থেকে পূর্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগর থানা এলাকার উদবাদাল খালের ভিতর দিয়ে কিছু একটা ঘুরে বেড়াচ্ছিল। নজর পড়তেই স্থানীয়রা বুঝতে পারেন তা ডলফিন। গ্রামের খালে ডলফিন, একথা শুনেই অবাক হয়ে যান স্থানীয়রা। বনদপ্তরের তরফে ডলফিনটিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করা হয়। খালের পাশে বনকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। বারবার ডলফিনটিকে ধরার চেষ্টা করাও হয়। তবে কোনওভাবেই তাকে ধরা যায়নি। শনিবার সকালে নেতুরিতার কাছে মুগবেড়িয়া খালে ওই ডলফিনটির দেহ ভাসতে দেখেন স্থানীয়রা।

dolphin

সেই ঘটনার পর শ্যামপুরের খাল থেকে সুস্থ অবস্থায় ডলফিন উদ্ধারেই দানা বেঁধেছে বিতর্ক। এই ডলফিনটিকে এত দ্রুত উদ্ধার করা সম্ভব হল, তবে কেন পূর্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগরের খালে মেলা ডলফিনটিকে উদ্ধার করা যায়নি, উঠছে সেই প্রশ্ন। তবে কি ফাঁক ছিল বনদপ্তরেরই? সেই প্রশ্নও উঠতে শুরু করেছে। তবে এবিষয়ে বনদপ্তরের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। কিন্ত কিভাবে ডলফিনগুলি খালে এল, সে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট নয়।

[আরও পড়ুন: সহজ হচ্ছে পদ্ধতি, এবার ভরতুকিযুক্ত রেশন কার্ডের আবেদন করা যাবে অনলাইনে]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং