২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: কাটমানি ফেরতের দাবিতে পঞ্চায়েত সদস্যার বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে। মারধর করা হয়েছে প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানকেও। বৃহস্পতিবার সকালে চাঞ্চল্যকর ঘটনা পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুরের। এদিনের ঘটনায় অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিযুক্ত প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধান। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। যদিও আক্রান্তের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেই অভিযোগ বিক্ষোভকারীদের। 

                   [আরও পড়ুন: বিস্ময় বালক, দেশ-বিদেশের রাজধানী গড়গড়িয়ে বলে দিচ্ছে দুধের শিশু]

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরেই কাটমানি ফেরতের দাবিতে সরব হয়েছেন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের বাসিন্দারা। এবার কাটমানি ফেরতের দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠল পশ্চিম মেদিনীপুরের পটাশপুর। জানা গিয়েছে, পঞ্চায়েত সদস্য পম্পা প্রধান বিভিন্ন সময়ে প্রশাসনিক পরিষেবা পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রচুর টাকা কাটমানি নিয়েছেন স্থানীয়দের থেকে। সেই টাকা ফেরত চেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ওই পঞ্চায়েত সদস্যার বাড়ির বাইরে ভিড় জমান বিজেপি কর্মীরা। দীর্ঘক্ষণ  বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। অভিযোগ, মারধরও করা হয় ওই পঞ্চায়েত সদস্যার শাশুড়ি তথা প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধান মঞ্জুরানি দেবীকে।

আরও অভিযোগ, টাকা ফেরত দিতে অস্বীকার করায় ওই মহিলার বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। এদিনের ঘটনার জেরে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধান। এরপরই তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়। খবর পেয়ে পটাশপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাঁদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখান আন্দোলনকারীরা। বেশ কিছুক্ষণ পর স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। তবে এখনও থমথমে এলাকা। 

[আরও পড়ুন: দেনার দায়ে মানসিক অবসাদ, পোষ্য সারমেয়দের গুলি করে মেরে আত্মঘাতী যুবক]

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধান মিথ্যে বলছেন। তাঁদের কথায়,”বৃহস্পতিবার টাকা ফেরতের প্রসঙ্গে স্থানীয়দের সঙ্গে বৈঠক করার কথা ছিল ওই পঞ্চায়েত সদস্যার। সেই কারণেই আমরা তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলাম। তবে আমরা কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মী নই। আমরা ঘটনাস্থলে যেতেই উনি আমাদের কথায় কর্ণপাত না করেই নিজের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন। এরপর গোটা ঘটনাটির দায় চাপান বিক্ষোভকারীদের উপর।” প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধান, পঞ্চায়েত সদস্যা ও বিক্ষোভকারী দু’জনের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং