BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আচমকা বিনা মেঘে বজ্রপাতে মৃত্যু ৪ জনের, আশঙ্কাজনক আরও এক

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 14, 2020 8:44 pm|    Updated: May 14, 2020 8:47 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: বিনা মেঘে বজ্রপাত। সেই বজ্রাঘাতে মৃত্যু হল চারজনের। জখম আরও একজন। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মল্লারপুর থানার বিলাসপুর গ্রামে। মৃত রাজেশ দোলুই, বাপন লেট, আস্তিক লেট ও দীনেশ লেট সকলেই স্থানীয় বাসিন্দা। মিঠুন মাড্ডি নামে জখম ব্যক্তি আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে লকডাউনের মাঝে কেন বাড়ির বাইরে লোকজন ঘোরাফেরা করছিলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মল্লারপুর থানার বিলাসপুর গ্রামের মাঠে ক্রিকেট খেলা চলছিল। সে সময় একটু দূরে বটগাছের নিচে বসে খেলা দেখছিলেন পাঁচ জন। বিকেলের দিকে আচমকা বজ্রপাত হয়। তাতেই পাঁচজন জখম হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁদের প্রথমে মল্লারপুর ব্লক প্রাথমিক হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সেখানে থেকে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তাঁদের। তবে পথেই চারজনের মৃত্যু হয়। মৃতরা হলেন রাজেশ দোলুই, বাপন লেট, আস্তিক লেট ও দীনেশ লেট। এই ঘটনায় গুরুতর জখম হন মিঠুন মাড্ডি নামে আরও একজন। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

[আরও পড়ুন: কষ্ট করে ফেরাই সার, সংক্রমণের আশঙ্কায় পরিযায়ী শ্রমিককে বাড়ি ঢুকতে বাধা স্ত্রী-সন্তানের]

তবে লকডাউনের মাঢেও কেন মাঠে ক্রিকেট খেলা চলছিল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। যদিও পুলিশের দাবি মাঠে কোনও খেলা চলছিল না। বিভিন্ন বয়সের গ্রামের মানুষ মেঘ দেখে বাড়ি ফিরছিলেন। মেঘ দেখে তাঁরা পথের ধারে বটগাছের নিচে দাঁড়ান। পাশের তাল গাছে বাজ পড়ে। তাতেই জখম হন পাঁচজন। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই চারজনের মৃত্যু হয়। একজন এখনও মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। কিন্তু এখানেও প্রশ্ন থেকেই যায়। নিয়মানুযায়ী মেঘ দেখেও লকডাউনে বাড়ির বাইরে বেরনো নিষেধ। তা সত্ত্বেও কেন ওই পাঁচজন বাড়ির বাইরে বেরলেন? তাহলে কি বিলাসপুর গ্রামে লকডাউন সঠিকভাবে মানা হচ্ছে না, বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনার মাঝেও সে প্রশ্ন থেকেই যায়।

[আরও পড়ুন: ঘরের অভাব, রেড জোন থেকে বাড়ি ফিরে শৌচালয়েই কোয়ারেন্টাইনে পরিযায়ী শ্রমিক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement