২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির জয়লাভের পর গেরুয়া শিবিরে যোগদানের হিড়িক পড়েছিল। দিল্লিতে গিয়ে নৈহাটি পুরসভার শাসকদলের ১৭ জন কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। অভিযোগ উঠেছে, বিজেপিতে যোগ দেওয়া ১৭ জন কাউন্সিলরের মধ্যে চারজন বুধবার থেকে বেপাত্তা। দলবদলের খেলায় মেতেছেন ওই চার কাউন্সিলর। বিশেষ সূত্রে খবর, ওই চারজন কাউন্সিলর হলেন, বেলা বিশ্বাস, অঞ্জনা সেনগুপ্ত, রুবি চট্টোপাধ্যায়, রীনা সুতার। এদিন কাউন্সিলর রুবি চট্টোপাধ্যায়ের খোঁজ নিতে গেলে তাঁর দেখা মেলেনি। তাঁর পরিবারের সদস্যরা বলেন, “তিনি বুধবার বাড়ি থেকে বেরিয়েছেন। কিন্তু কোথায় গিয়েছেন তা বলে যাননি।”

[আরও পড়ুন: অশান্তি অব্যাহত ভাটপাড়ায়, বোমা বাঁধতে গিয়ে বিস্ফোরণে মৃত্যু দুষ্কৃতীর]

নির্ভরযোগ্য সূত্র বলছে, তৃণমূলের উচ্চ নেতৃত্বের কৌশলে ওই চারজন নৈহাটি ছেড়ে অন্যত্র আত্মগোপন করে রয়েছেন। পরিস্থিতি বুঝেই তাঁরা তৃণমূলে ফিরে আসবেন। চারজনের মধ্যে দু’জন বকখালি এবং দু’জন মন্দারমনিতে ছুটি কাটাচ্ছেন। নির্ভরযোগ্য সূত্রে আরও খবর, বিজেপি থেকে তৃণমূলে ভিড়তে পারেন আরও চারজন কাউন্সিলর। উল্লেখ্য, গত ৩১ মে ১৮ জন বিজেপি কাউন্সিলর নৈহাটি পুরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসারের কাছে অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিলেন। কিন্তু শাসকদল অত্যন্ত সুকৌশলে পরদিনই পুরসভায় প্রশাসক বসিয়ে দেন। প্রতিবাদে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন বিজেপি কাউন্সিলররা। নৈহাটি পুরসভার সিদ্ধান্ত এখনও হাই কোর্টে আটকে রয়েছে। খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি, কাঁচড়াপাড়া, হালিশহরের মতোই নৈহাটি পুরবোর্ড তাঁদের দখলে আসবে। কাউকে জোর করে আনা হচ্ছে না। ঘরের লোক ঘরে ফিরতে চাইছেন। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। প্রসঙ্গত, নৈহাটি পুরসভায় মোট ওয়ার্ড ৩১টি। যদি বেপাত্তা চারজন তৃণমূলে ফিরে আসেন, তাহলে শাসকদলের সংখ্যা দাঁড়াবে ১৭।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং